আজীবন আপনার গ্যাসের চুলাকে ঝকঝকে রাখার সবচাইতে সহজ উপায়!

যারা ব্যস্ত জীবনযাপন করেন আর ঘরের সকল কাজ নিজেকেই করতে হয় আমার মত, তাঁদের ভীষণ কাজে আসবে এই পদ্ধতিটি। প্রতিদিন মাত্র ৫ মিনিট আর পেয়ে যাবেন একটা যন্ত্রণা থেকে আজীবনের মুক্তি!

চুলা মানেই সেখানে খাবার পড়বে। ভাতের মাড় থেকে শুরু করে বলক দেয়া দুধ, সবই পড়ে এই এক গ্যাসের চুলার ওপরে। আর সবচাইতে বেশী পড়ে তেলের ছিটে। সব মিলিয়ে যত দামী চুলাই কিনুন না কেন, কিছুদিন যেতে না যেতেই সকলের বাড়ির চুলাই হয়ে পড়ে একেবারে তেল চিটচিটে আর একে পরিষ্কার করা হয়ে দাঁড়ায় ভীষণ ঝামেলার এক কাজ। গরম পানি, সাবান, মাজুনি আরও কত কী লাগে! যদি বলি এসব জিনিসপত্র ছাড়াই নিজের বাড়ির চুলাকে আপনি রাখতে পারবেন একেবারে ঝকঝকে-তকতকে? হ্যাঁ, গরম পানি বা ডিটারজেন্টের ঝামেলা তো নেই-ই নেই , সাথে নেই কোন রকম ঘষাঘষির ঝামেলাও! কী, অবাক লাগছে? চলুন তাহলে, আজ আমরা জেনে নিই নিত্যদিন প্রয়োজনের গ্যাসের চুলাকে একদম ঝকঝকে রাখার সবচাইতে সহজ কৌশলঃ

যা যা লাগবে
১। গ্লাস ক্লিনার বা টাইলস ক্লিনার প্রয়োজন মত কিংবা
দুটি বড় লেবুর রস।
২। একটি কাপড়/ফোম/ টিস্যু।

যেভাবে করবেন-

১। আজকের দিনের মত রান্না-বান্না শেষ? তাহলে চুলাগুল একদম ভালো করে নিভিয়ে দিন।

২। তারপর গ্লাস ক্লিনার বা লেবুর রস চুলার ওপরে ছিটিয়ে দিন। লেবুর রস হলে কয়েক মিনিট অপেক্ষা করবেন। গ্লাস ক্লিনার হলে সাথে সাথেই পরিষ্কার করা যাবে। যেসব জায়গায় বেশি নোংরা, সেখানে পরিমাণে বেশী দেবেন।

৩। ফোম, কাপড় বা টিস্যু দিয়ে ভালো করে মুছে ফেলুন।

৪। যদি তেল চিটচিটে ভাব বেশী হয়, তাহলে একইভাবে আরও একবার পরিষ্কার করুন।

ব্যস! এতেই আপনার চুলে হয়ে উঠবে একেবারেই ঝকঝকে! প্রতিদিন নিয়ম মেনে করলে আপনার গ্যাসের চুলাটি থাকবে আজীবন নতুনের মত!

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here