ইফতারিতে থাকুক কয়েক রকমের শরবত

নীলিমা দোলা

সারাদিনের রোজার ক্লান্তি দূর করে দিতে পারে শরবত। ইফতারি তে তৈরি করতে পারেন নানা রকমের শরবত। জেনে নিন কিছু শরবত তৈরির রেসিপি

মসলাদার লাচ্ছি
উপকরণ: টক দই ২ কাপ, পানি সোয়া এক কাপ, আদা ঝুরি (আড়াই সেন্টিমিটার) ১ টুকরা, জিরা গুঁড়া (টেলে নেওয়া) আধা চা-চামচ, লবণ ১ চা-চামচ, ব্রাউন সুগার ১ টেবিল চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া টালা পৌনে এক চা-চামচ, ধনেপাতা কুচি আধা টেবিল, চামচ, কাঁচা মরিচ কুচি ২টি।
প্রণালি: বাটিতে টক দই ভালো করে ফেটে নিয়ে পানি মিশিয়ে আরও কিছুক্ষণ ফেটে নিন। এবার আদা ঝুরি, কাঁচা মরিচ কুচি, ধনেপাতা কুচি, টালা জিরা ও গোলমরিচ, লবণ এবং চিনি দইয়ের মিশ্রণে মিশিয়ে নিন। ব্লেন্ড করে বরফ কুচি দিয়ে পরিবেশন করুন।

চা আর ফলের শরবত
উপকরণ: পানি আড়াই কাপ, দারুচিনি (এক ইঞ্চি) ১ টুকরা, লবঙ্গ ৪টি, চিনি ১ কাপ, চা পাতা আড়াই চা-চামচ, লেবুর রস একটি লেবুর, মৌসুমি যেকোনো ফলের রস ২ কাপ, লেবু ১ টুকরো, লেবুর খোসা মিহি কুচি আধা টেবিল চামচ, মালটা এক টুকরো, পুদিনা পাতা কুচি ১ টেবিল চামচ।
প্রণালি: একটি পরিষ্কার হাঁড়িতে পানির সঙ্গে দারুচিনি এবং লবঙ্গ দিয়ে ভালো করে ফুটতে দিন। পানি ফুটে উঠলে চা পাতা দিয়ে চুলা বন্ধ করে নেড়ে পাঁচ মিনিট ঢেকে রাখুন। তারপর ছেঁকে চিনি দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নেড়ে ঠান্ডা করে ফলের রস মিশিয়ে নিন। নেড়ে দু-তিন ঘণ্টার জন্য ফ্রিজে রাখুন। পরিবেশনের আগে ফ্রিজ থেকে বের করে লেবুর রস, খোসা কুচি এবং পুদিনাপাতা মিশিয়ে ভালো করে ঝাঁকিয়ে নিন। এবার পরিবেশনের গ্লাসে এক টুকরো মালটা (কারণ এখানে মালটার রস ব্যবহার করা হয়েছে) পাতলা গোল করে কেটে চায়ের মিশ্রণ ঢেলে দিন। বরফ কুচি মিশিয়ে গ্লাসের মাথায় টুকরো লেবু গোল করে কেটে পরিবেশন করুন।
জাফরানি শরবত
উপকরণ: ঘন দুধ আড়াই কাপ, আমন্ড বা কাঠবাদাম কুচি ১ কাপ, মালাই ১ কাপ, চিনি ১ কাপ, গোলাপজল ১ টেবিল চামচ, জাফরান আধা চা-চামচ।
প্রণালি: গোলাপজলে জাফরান ভিজিয়ে রাখুন। দুধের সঙ্গে চিনি এবং মালাই মিশিয়ে ভালো করে ফেটে নিন। সাজানোর জন্য কিছুটা বাদাম রেখে ব্লেন্ডারে বেিশর ভাগ বাদাম এবং দুধের মিশ্রণ ও গোলাপজলে মেশানো জাফরান দিয়ে ব্লেন্ড করে নিন। গ্লাসে ঢেলে ওপরে বরফ কুচি, বাদাম কুচি দিয়ে পরিবেশন করুন।
দইয়ের শরবত
উপকরণ: টক দই ১ কাপ, পানি ১ কাপ, চিনি ১ কাপ, গোলমরিচ গুঁড়া সিকি চা-চামচ, রসুন বাটা আধা চা-চামচ, পুদিনাপাতা বাটা আধা টেবিল চামচ, বিট লবণ স্বাদমতো।
প্রণালি: বাটিতে দই এবং পানি ভালো করে ফেটে নিন। তারপর চিনি, রসুন বাটা, বিট লবণ, গোলমরিচ গুঁড়া এবং পুদিনাপাতা বাটা মিশিয়ে ভালো করে ফেটে নিন। ব্লেন্ডারে কিছু বরফ কুচি দিয়ে ৩০ সেকেন্ড ব্লেন্ড করে গ্লাসে ঢেলে পরিবেশন করুন।
আম-দইয়ের শরবত উপকরণ: পাকা আমের টুকরা করা ৪০০ গ্রাম, ১টি লেবুর খোসা কুচি, অর্ধেকটি লেবুর রস, ক্রিম ১ কৌটা বা ১৭০ গ্রাম, টক দই এক কাপের ৩ ভাগের ২ অংশ, চিনি ৬ টেবিল চামচ।
প্রণািল: আমের টুকরোগুলো ব্লেন্ডারে নিয়ে চিনি, লেবুর খোসা, রসসহ ব্লেন্ড করে নিন। তারপর তারের চালুনি দিয়ে চেলে নিয়ে খোসাগুলো ফেলে দিন। একটি বাটিতে দই এবং ক্রিম নিয়ে ভালো করে ফেটে নিন যতক্ষণ পর্যন্ত ঘন না হয়। তারপর দ্রুত আমের মিশ্রণ ঢেলে ভালো করে মিশিয়ে ফেটে নিন। তারপর দুই-তিন ঘণ্টা ফ্রিজে রেখে ইফতারের আগে বের করে গ্লাসে ঢেলে নিন। ওপরে আম কুচি এবং সামান্য লেবুর খোসা কুচি ছিটিয়ে পরিবেশন করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here