উচ্চতা বাড়িয়ে তুলুন পোশাকের স্টাইলে

0
544
উচ্চতা কম বেশি হলে বিভিন্ন সময় পোশাক নির্বাচনে বেশ ঝামেলায় পড়তে হয়

ট্রেন্ড মেনে চলেন না এমন নারী খুঁজে পাওয়া বেশ কষ্টকর। যখন ট্রেন্ডে কোন পরিবর্তন আসে তা গড়পড়তা সবার কথা মাথায় রেখেই আসে। আপনার ব্যক্তিগত উচ্চতা, ওজন, গায়ের রঙ এসব কিন্তু সেই ট্রেন্ডের বিবেচ্য বিষয় নয়। কাজেই নতুন কোন ট্রেন্ডের সাথে ‘গো উইথ দ্যা ফ্লো’ নীতিতে চলার আগে অবশ্যই আপনাকে দেখে নিতে হবে এই ট্রেন্ডি পোশাকটিতে আপনাকে কতটুকু মানাচ্ছে, আপনার উচ্চতা এবং ওজনের সাথে তা কতটুকু যাচ্ছে।

উচ্চতা অনুযায়ী পোশাক নির্বাচনে ঝামেলাঃ

উচ্চতা কম বেশি হলে বিভিন্ন সময় পোশাক নির্বাচনে বেশ ঝামেলায় পড়তে হয়। খাটো মেয়েদেরকে পালাজ্জোয় মানায় না, আবার ঢোলা সালোয়ার বা প্যান্টেও তাদেরকে বেশি খাটো মনে হয়।

অপরদিকে যারা বেশি লম্বা তাদেরকে শর্ট কামিজে বেখাপ্পা লাগে, হাইহিল জিনিসটা তাদের সাথে যেন ঠিক যায় না। এরকম নানা সমস্যার কথা মাথায় রেখে ড্রেস বানানোর সময় এমন ধরণের ড্রেস আপনাকে বেছে নিতে হবে যা আপনার উচ্চতা, গড়ন ও ব্যক্তিত্বের সাথে ঠিকমতো মানিয়ে যায়।

উচ্চতা যখন কমঃ 

বাংলাদেশের মেয়েদের উচ্চতার গড় হিসাব করতে গেলে তা মোটামুটি ৫ ফিট থেকে শুরু করে ৫ ফিট ৪ ইঞ্চি পর্যন্ত দাঁড়াবে। এর চেয়ে বেশি উচ্চতার মেয়েও যেমন আছেন, কম উচ্চতার মেয়েও তেমনি আছেন। তবে আমরা ধরে নিতে পারি ৫ ফিট ২ ইঞ্চি আমাদের দেশের মেয়েদের জন্য ষ্ট্যাণ্ডার্ড একটি উচ্চতা।

মধ্যম উচ্চতার মেয়েরা পোশাক নির্বাচনের ক্ষেত্রে বেশ স্বাধীনতা ও সুবিধা পান। খুব বেটে বা ঢ্যাঙা লম্বা দেখানোর ঝুঁকি তাদের নেই। ছোটখাটো কিছু নিয়ম মেনে পোশাক বানিয়ে সহজেই তারা হয়ে উঠতে পারেন ফ্যাশন আইকন।

পোশাকের মাধ্যমেই বাড়িয়ে তুলুন আপনার নিজের উচ্চতাঃ

৫ ফিট ২ ইঞ্চিকে আমরা যতই ষ্ট্যাণ্ডার্ড ধরি না কেন, তাদেরও তো ইচ্ছা হতে পারে নিজেকে আরও কিছুটা লম্বা দেখাক। শুধুমাত্র পোশাকের কাপড়, রঙ ও ডিজাইনে পরিবর্তন এনে নিজের স্বাভাবিক উচ্চতার উপস্থাপনে পরিবর্তন আনা সম্ভব। পোশাক আপনাকে লম্বা করতে না পারুক, আপনাকে লম্বা হিসেবে উপস্থাপন তো করতে পারবে!

এক ঝলকে দেখে নেয়া যাক পোশাকের মাধ্যমে উচ্চতা পরিবর্তনের কিছু কৌশল।

লম্বালম্বি নকশার পোশাকঃ

আড়াআড়ি নকশার পোশাকে লম্বাদেরই একটু যেন খাটো মনে হয়, কি দরকার এধরণের পোশাকগুলো পরার? তার চেয়ে একটু লম্বালম্বি নকশার পোশাক বা স্ট্রাইপ দেয়া ড্রেস পরুন, আপনাকে স্বাভাবিকের চেয়ে লম্বা মনে হবে। আর সতর্কতার সাথে এড়িয়ে চলুন আড়াআড়ি নকশার পোশাক।

একরঙা পোশাকঃ

একরঙা পোশাকগুলো একদিকে যেমন ফ্যাশনেবল, অন্যদিকে এগুলো শারিরিক বিভিন্ন খুঁত ঢেকে দিতেও সমান এক্সপার্ট। তাই নিজেকে বেশ কিছুটা লম্বা দেখাতে গাঢ় শেডের এক রঙের পোশাক বেছে নিতে পারেন।

শাড়ির ডিজাইন ও পরার ধরন আপনার উচ্চতা ও গড়নে বেশ অনেকটাই পরিবর্তন আনতে পারে
শাড়ির ডিজাইন ও পরার ধরন আপনার উচ্চতা ও গড়নে বেশ অনেকটাই পরিবর্তন আনতে পারে

ছোট হাতার পোশাকঃ

হাত অনেকটাই বের হয়ে থাকে বলে ফুল স্লিভ বা থ্রি কোয়ার্টারের চেয়ে ছোট হাতার পোশাক পরলে আপনাকে বেশ লম্বা দেখাতে পারে। তবে যাদের হাত মোটা তারা এই কৌশলটি অনুসরণ করা থেকে বিরত থাকুন, নাহলে হিতে বিপরীত হতে পারে।

ছোট নকশার পোশাকঃ

বড় প্রিন্টের পোশাকগুলো শারীরিক গড়নকে বেশি মাত্রায় ফুটিয়ে তোলে, এতে আপনাকে একই সাথে মোটা আর খাটো দেখাবে। তার চেয়ে ছোট ছোট ফুলেল নকশার পোশাক বেছে নিন, বর্তমান ট্রেন্ডের সাথেও দিব্যি মানিয়ে যাবে।

টপসঃ

এখন গোল ঘেরের টপসগুলো খুব চলছে। কিন্তু মাঝারি উচ্চতায় এই টপস পরলে খুব বেশি আকর্ষণীয় মনে হবে না। তাই এই টপসই পরতে চাইলে বুদ্ধি খাটিয়ে একটু লম্বা করে বানান, যেন থাই দেখা না যায়। এতে আপনার ট্রেন্ড মেনে চলাও হবে, আবার আপনাকে লম্বাও লাগবে।

প্যান্ট ও সালোয়ারঃ

বেশি ঢিলা সালোয়ার বা বেল বটোম, ডিভাইডার প্যান্ট কম উচ্চতার মেয়েদের শত্রু, তবে মাঝারি উচ্চতায় তা পরা যেতেই পারে। আর উচ্চতা বাড়াতে হলে পরে ফেলুন জেগিংস, লেগিংস বা ন্যারো কাটের যেকোনো প্যান্ট। আর সালোয়ারের ক্ষেত্রে ঘের ও পায়ের মুহুরি কম দেয়াই ভালো। আর কুচি দেয়া সালোয়ারের পরিবর্তে স্ট্রেট কাট সালোয়ার পরুন।

শাড়িঃ

শাড়ির ডিজাইন ও পরার ধরন আপনার উচ্চতা ও গড়নে বেশ অনেকটাই পরিবর্তন আনতে পারে। চিকন পাড়ের শাড়ি পরুন, তাতে থাকুক ছোট ছোট নকশা। আপনাকে বেশ লম্বা লাগবে এতে। ভারি ডিজাইনের শাড়িতে তো লম্বা মানুষকেও খাটো দেখায়। তার চেয়ে নিউজ প্রেজেন্টারদের মতো আঁচল ভাঁজ করে শাড়ি পরুন আপনার উচ্চতার সাথে মানানসই নকশায়।

শুধু উচ্চতাই নয় পোশাক নির্বাচনের উপর গড়নেরও ভূমিকা রয়েছে। সেসব নিয়ে নাহয় আরেকদিন লেখা যাবে। আসন্ন ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে বাংলাদেশের কম উচ্চতার মেয়েরা আপাতত ট্রেন্ডের সাথে এই বিষয়গুলোই মাথা রাখুক।

তথ্যসূত্রঃ ৪০ প্লাস স্টাইল ডট কম

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here