এক ক্ষুদে বীরপুরুষ মাকে বাঁচিয়েছে! 

স্মার্টফোন ব্যবহার করেই এবার মাকে বাঁচিয়েছে এক ক্ষুদে বীরপুরুষ। বয়স মাত্র চার।

ছোটবেলায় রবী ঠাকুরের সেই ‘বীরপুরুষ’ কবিতার কথা মনে আছে? ছোট্ট ছেলের কল্পনা, সে মাকে নিয়ে অনেক দূরে যাচ্ছে। পথিমধ্যে ডাকাতের আক্রমণ। তারপর ছোট্ট বীর ছেলে ডাকাতদের সঙ্গে লড়াই করে মায়ের বিপদ দূর করে। প্রযুক্তির এই যুগে সেই রাঙা ঘোড়া, ঢাল-তলোয়ার না থাকলেও স্মার্টফোন তো আছে!

সেই স্মার্টফোন ব্যবহার করেই এবার মাকে বাঁচিয়েছে এক ক্ষুদে বীরপুরুষ। বয়স মাত্র চার। ভালো করে কথাও ফোটেনি। এই বয়সেই ব্রিটিশ এবং মার্কিন গণমাধ্যমগুলোর শিরোনামে ছোট্ট ছেলে রোমান। সে যা করেছে, তা হয়তো অনেক বয়স্কদের পক্ষেও করা সম্ভব না। মায়ের আইফোনের লক খুলে তার প্রাণ বাঁচিয়েছে এই ব্রিটিশ শিশু।

স্মার্টফোন ব্যবহার করেই এবার মাকে বাঁচিয়েছে এক ক্ষুদে বীরপুরুষ।
স্মার্টফোন ব্যবহার করেই এবার মাকে বাঁচিয়েছে এক ক্ষুদে বীরপুরুষ।

ঘটনাটি ঘটেছে গত ৭ মার্চ। তবে সম্প্রতি তা জানাজানি হওয়ার পর গণমাধ্যমে আসে। লন্ডন শহরের দক্ষিণাঞ্চলে নিজেদের বাড়িতে ভাই-বোনের সঙ্গে খেলা করছিল রোমান। তাদের খেলার মধ্যে হঠাৎ অজ্ঞান হয়ে পড়েন তার মা। এমন পরিস্থিতিতে নিজের অসাধারণ উপস্থিত বুদ্ধি কাজে লাগায় রোমান। সেই গল্পটা রীতিমতো অবাক করার মতো।

মায়ের আইফোনটি স্কিন লক করা ছিল। রোমান ফোনটিকে মায়ের কাছে নিয়ে তার আঙুল ছুঁইয়ে আইফোনের লকটি খুলে ফেলে। তারপর সেখান থেকে অ্যাপের মাধ্যমে ব্রিটেনের জরুরি সময়ের ফোন নম্বর ৯৯৯-এ ফোন করে। অপারেটর জানতে চান কী হয়েছে, রোমানের উত্তর ছিল- তার মায়ের মৃত্যু হয়েছে।

রোমানের উত্তর শুনে অপারেটর আবার প্রশ্ন করেন- কী করছে তার মা? তার উত্তরে সে জানায়, মা শুয়ে আছে। চোখ দুটো বন্ধ। আর নিঃশ্বাসও নিচ্ছে না। রোমানের উত্তর শুনে ১৫ মিনিটের মধ্যেই বাড়িতে এসে উপস্থিত হয় সাহায্যকারী দল।

তার রোমানের মাকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। জ্ঞান ফিরিয়ে আনা হয় তার। আপাতত তিনি সুস্থ রয়েছেন। এদিকে ছোট্ট রোমানের এই কীর্তিতে বিস্মিত হওয়ার পাশাপাশি গর্বিতও তার পরিবার। সঠিক শিক্ষা ছোট থেকেই মানুষকে কতটা পরিণত করে তোলে, রোমান তার অন্যতম উদহরণ।

সূত্র: দ্য ইন্ডিপেনডেন্ট/ বণিক বার্তা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here