কিভাবে এল রোজ ডে?

0
442
ভ্যালেন্টাইন সপ্তাহের শুরুতে রোজ ডে উপলক্ষে বিশ্বব্যাপী চলছে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা

ভ্যালেন্টাইন সপ্তাহের শুরুতে রোজ ডে উপলক্ষে বিশ্বব্যাপী চলছে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা। তরুণ যুগল থেকে শুরু করে বৃদ্ধ দম্পতি কেউই বাদ যাচ্ছে না এই দিনটি উদযাপন করতে। কিন্তু কিভাবে শুরু হল এই রোজ ডে পালনের প্রচলন? চলুন এক নজরে দেখে আসা যাক শুরুর গল্পটি।

৩৫ মিলিয়ন বছর আগে শুরু হওয়া গোলাপের চাষ কাজে লাগত বিভিন্নভাবে। যেমন- কারও প্রতি ভালোবাসা প্রদর্শন, কাউকে শুভেচ্ছা জানানো বা যুদ্ধের মধ্যেও শান্তির প্রতীক হিসেবে ব্যবহৃত হত গোলাপ।

১৫ শতকের ইতিহাসের দিকে ফিরে তাকালে দেখা যাবে তখন একটি বিশেষ ঘটনার উৎপত্তি হয় যার নাম “ওয়ার অফ রোজেস”। এসময়ে লাল গোলাপ ছিল হাউজ অফ ল্যাঞ্চেস্টারের প্রতীক আর সাদা গোলাপ ছিল হাউজ অফ ইয়র্কের প্রতীক। অর্থাৎ তৎকালীন সময়ের প্রধান দুটি রাজনৈতিক দলের মধ্যকার পার্থক্য বোঝান হত গোলাপের রং দ্বারা।

 সারা বিশ্বে এখনো মানুষ ভালোবাসা জানাতে ও প্রকাশ করতে সাহায্য নেয় লাল গোলাপের
সারা বিশ্বে এখনো মানুষ ভালোবাসা জানাতে ও প্রকাশ করতে সাহায্য নেয় লাল গোলাপের

ইতিহাসের ভাষ্যমতে রাণী ক্লিওপেট্রার আমল থেকেই লাল গোলাপকে বিবেচনা করা হয় ভালবাসার প্রতীক হিসেবে। খ্রিস্টের জন্মের ৩০ শতাব্দী আগে থেকে প্রচলিত এই নিয়মের অন্যথা হয়না আজও। সে সময়ে রাণী ক্লিওপেট্রা তার স্বামী অ্যান্টনিকে অন্দরমহলে প্রবেশ করানোর জন্য স্বাগতম জানাতে তৈরি করেন লাল গোলাপের গালিচা।

তারপর থেকে শেক্সপিয়ারের বিভিন্ন গল্প, কবিতায় লাল গোলাপকে তুলে ধরা হয় বিশেষ তাৎপর্যের সাথে। সারা বিশ্বে এখনো মানুষ ভালোবাসা জানাতে ও প্রকাশ করতে সাহায্য নেয় লাল গোলাপের।

চতুর্দশ শতকে এসে প্রচলন ঘটে ভ্যালেন্টাইন্স ডের। ভালোবাসা সম্পর্কিত দিবসগুলোও জন্ম নেয় সেই সময়েই। সেই ধারায় গোলাপকে কেন্দ্র করে গড়ে ওঠা “রোজ ডে” আজও বিশ্বব্যাপী সমাদৃত।

তথ্যসূত্রঃ ফ্যাশন লেডি ডট ইন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here