কেমন হবে ছোট ঘরের আসবাবপত্র?

0
878
ছোট ঘরের জন্য আসবাবপত্র

ছোট বাড়িতে পরিবার নিয়ে আরামে বাস করাটাই বেশ ঝামেলা, তার ওপরে আসবাবপত্র ঠিক করে না গোছানো গেলে তো ঘরে টেকাই যায় না! আপনার বাড়িও যদি দরকারের তুলনায় ছোটই হয়, তাহলে চিন্তার কিছু নেই। দেখে নিন ছোট ঘরে কী কী আসবাবপত্র রাখলে ভীষণ উপকারে আসবে।

১) নেস্টিং টেবিলঃ নামটা অপরিচিত লাগাই স্বাভাবিক। নেস্টিং টেবিল হলো তেমন টেবিল, একটা নিচে আরেকটা করে অনেকগুলো টেবিল বা টুল ঢুকিয়ে রাখা যায়। একটি বড় টেবিলের নিচে একটু ছোট একটা টেবিল, তার নিচে আরেকটু ছোট একটা টেবিল এভাবে কম জায়গাতেই অনেকগুলো টেবিল রাখতে পারবেন। আর দরকারের সময়ে বের করে অতিথিদের খাবার পরিবেশ করতে পারবেন, বসতেও দিতে পারেন।

২) ফ্লোটিং শেলফঃ ভাবুন তো, বই, বিভিন্ন ইলেকট্রনিক যন্ত্রপাতি, শোপিস, ঘড়ি, টব ইত্যাদি রাখার জন্য শোকেস অথবা বুক শেলফ না কিনে যদি দেয়ালেই একটা শেলফ লাগিয়ে ফেলা যায় তবে কী অনেকটা জায়গা বেঁচে যায় না? শুধু জায়গা বাঁচানো নয়, দেয়ালে আটকানো এসব তাক দেখতেও খুব মডার্ন লাগে। ঘরটাকে আগের মতো আর ছোট লাগে না।

৩) বড় আয়নাঃ ছোট ঘরকে বড় দেখানোর জন্য অনেকেই আয়না ব্যবহার করে থাকেন। এই পদ্ধতিটি খুব কার্যকর। বেশ বড়, দেয়াল জোড়া আয়নাও ব্যবহার করতে পারেন। আর আয়নার সামনে অন্য কোনো আসবাব রেখেও জায়গাটির সদ্ব্যবহার করতে পারেন।

৪) বিছানার নিচে ড্রয়ারঃ সাধারণত বক্স খাট ধরণের বিছানা সবাই পছন্দ করেন না। কিন্তু বিছানার নিচে ড্রয়ার থাকলে তা খুব জায়গা বাঁচায়। বিশেষ করে কাঁথা, মশারি, এক্সট্রা বালিশ এসব চোখের আড়ালে রাখার জন্য এই ধরণের বিছানা খুব ভালো।

ছোট বাড়িতে পরিবার নিয়ে আরামে বাস করাটাই বেশ ঝামেলা, তার ওপরে আসবাবপত্র ঠিক করে না গোছানো গেলে তো ঘরে টেকাই যায় না
ছোট বাড়িতে পরিবার নিয়ে আরামে বাস করাটাই বেশ ঝামেলা, তার ওপরে আসবাবপত্র ঠিক করে না গোছানো গেলে তো ঘরে টেকাই যায় না

৫) ঝুলন্ত র‍্যাকঃ কাপড় চোপড় রাখার জন্যই মূলত সবচাইতে বেশি আসবাব কেনা হয়ে থাকে। ঘরে যদি এমন কোনো কর্নার থাকে যা অন্যদের চোখের একটু আড়াল, তবে সেখানেই একটি র‍্যাক বা নিদেনপক্ষে একটি রড সেট করে তাকে হ্যাঙ্গার রাখার স্টোরেজ হিসেবে চমৎকার সদ্ব্যবহার করতে পারেন। সবসময় ব্যবহারের কাপড় রাখার জন্য এগুলো দারুণ।

৬) ট্রলি টেবিলঃ এমন টেবিল কিনতে পাওয়া যায় যাতে কয়েকটি তাক আছে আবার নিচে ট্রলির মতো চাকা লাগানো। জায়গা বাঁচানোর জন্য এগুলো অসাধারণ। অতিথি এলে এতেই নাশতা দিতে পারবেন, আলাদা ট্রে এবং টেবিল লাগবে না। অন্য সময়ে বিভিন্ন কৌটা, থালাবাসন এটা সেটা রাখতে পারেন, রাত্রে নাইট স্ট্যান্ড হিসেবেও ব্যবহার করতে পারেন।

৭) ঝুড়িঃ বিভিন্ন রকমের, নানান ডিজাইনের রংবেরঙের ঝুড়ি কিনতে পাওয়া যায় বেশ কম দামেই। হরেক রকমের টুকিটাকি রাখার জন্য ব্যবহার করতে পারেন এসব ঝুড়ি। একের ওপর একটা, বিছানা বা টেবিলের নিচেও রেখে দিতে পারেন এগুলো, জায়গা অনেকটাই বাঁচবে।

তথ্যসূত্রঃ হোম ইনসাইড ডট কম

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here