গবেষকরা বলেছেন, ফেসবুকে অন্যের পোস্ট বেশি দেখা ঠিক নয়,

তাদের আবেগের উপর নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে এবং জীবনের সন্তুষ্টি কমে যেতে পারে।

ফেসবুকে সারাক্ষণ শুধু অন্যের পোস্ট দেখা যে কারো জন্য ক্ষতিকর বলে মনে করছেন গবেষকরা। ডেনমার্কের কোপেনহেগেন বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণা বলছেন, যারা ফেসবুকের মত সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে মানুষের সাথে কথাবার্তা না বলে শুধু অন্যের পোস্ট দেখে যাচ্ছেন, তাদের আবেগের উপর নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে এবং জীবনের সন্তুষ্টি কমে যেতে পারে।

আর এই গবেষণায় অংশ নিয়েছিলেন এক হাজারেরও বেশি মানুষ, যাদের বেশিরভাগই নারী।   এই গবেষণায় বলা হচ্ছে, সোশাল মিডিয়ায় দীর্ঘ সময় ধরে অন্য মানুষের পোস্ট, তাদের বিভিন্ন জায়গায় বেড়ানোর ছবি, ‘নিখুঁত’ পারিবারিক জীবন, সাফল্যের কাহিনি ইত্যাদি দেখার পর মনে অবাস্তব তুলনা করার মনোভাব তৈরি হতে পারে। এর ফলে ঈর্ষা বাড়তে পারে এবং ‘মুড অফ’ হওয়ার  সম্ভাবনা দেখা দিতে পারে বলে গবেষণায় উল্লেখ করা হয়েছে। সাইবার সাইকোলজি, বিহেভিয়ার অ্যান্ড সোশাল নেটওয়ার্কিং সাময়িকীতে এই গবেষণার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। এতে গবেষকরা আরো বলছেন, যারা সোশাল মিডিয়াতে ‘অ্যক্টিভ’ থাকেন এবং নিয়মিতভাবে অন্য  ব্যবহারকারীদের সাথে ভাবের আদান-প্রদান করেন তাদের মনের উপর এই অভিজ্ঞতার শুভ প্রভাব পড়ার কথা। কিন্তু যারা তেমন ‘ইন্টার‍্যাক্টিভ’ না, তাদের মনের উপর প্রভাব নেতিবাচক হতে পারে। তাই আপনাকেও সামাজিক যোগযোগের মাধ্যমে আরো বেশি সক্রিয় হতে হবে। অথবা সম্ভব  হলে ফেসবুক, টুইটার ইত্যাদি থেকে দূরে থাকাই ভাল।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here