গাছ ক্ষতিকারক টক্সিন শুষে ঘরের বাতাস বিশুদ্ধ করবে!

আজকালকার দূষণভরা জীবনে নিজের অফিস ও ঘরকেই করে তুলুন সবচেয়ে বেশি স্বাস্থ্যকর।

ঘরের ভেতরে থেকেও আপনি অসুস্থ হয়ে যেতে পারেন শুধু মাত্র বিষাক্ত বাতাসের কারণে। এই বিষাক্ত বাতাস বিশুদ্ধ করার জন্য বাজার থেকে কেনা এয়ার ফ্রেশনার ব্যবহার করেন! এই এয়ার ফ্রেশনারগুলো আপনার ঘরের বাতাস পরিষ্কার করতে পারে না। বরং এয়ার ফ্রেশনারের রাসায়নিক পদার্থ আপনার ঘরের বাতাসকে আরও দূষিত করে তোলে। অথচ প্রকৃতিতে কিছু গাছ আছে যা ঘরের বাতাসকে বিশুদ্ধ করে দূষণমুক্ত করে ঘর ও অফিসে সতেজতা আনে। সেই সঙ্গে এইসব গাছগুলো বাতাস থেকে ক্ষতিকর পদার্থ শুষে নেয়। বাতাসে মিশে থাকা দূষিত উপাদান জন্ম দেয় নানা রোগের। সেক্ষেত্রে এ মৌসুমে ঘরে রাখতে পারেন সেই সব গাছ, যা বাতাস পরিষ্কার রাখে, শুষে নেয় ক্ষতিকারক টক্সিন আর সৌন্দর্যের বিষয়টি তো রয়েছেই। কিন্তু সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে, এর ফলে ঘরে কোনো কৃত্রিম সুগন্ধি বা এয়ার ফ্রেশনার ব্যবহার করতে হবে না। নিজের অন্দরে বা কর্মস্থলে এ যেন প্রকৃতিকেই ধারণ করা।

অ্যালোভেরা
অ্যালোভেরা

অ্যালোভেরা

অ্যালোভেরা বাতাস ডিটক্সিফিকেশনের কাজ করে। এটি একটি দূষণ প্রতিরোধক উপাদান। ফলে ঘরে অ্যালোভেরা গাছ রাখলে তা বাতাস পরিচ্ছন্ন করতে ভূমিকা রাখে। ঘরে দূষণের মাত্রা বেড়ে গেলে অ্যালোভেরার পাতায় ছিট ছিট দাগ পড়ে। ফলে এটি আপনাকে ঘরের আবহাওয়া সম্পর্কে তথ্য দিতে সক্ষম।

জারবেরা ডেইজি

জারবেরা ডেইজি
জারবেরা ডেইজি

এ গাছটির প্রয়োজন অনেক সূর্যের আলো। একই সঙ্গে গাছে পানি দেয়ার পর তা যেন ভালোভাবে মাটি চুইয়ে বেরিয়ে যায়, তাও খেয়াল রাখতে হবে। বসন্তের মধ্যভাগ থেকে শরত্ পর্যন্ত এরা ফুল দেয়। যত্ম-আত্তিতে একটু খাটনি হলেও এ গাছ ঘর থেকে বেনজিন ও ট্রাইক্লোরোইথিলিন টক্সিন দূর করে। চাইলে বারান্দাতেও রাখতে পারেন।

স্নেক প্লান্ট

সৌন্দর্যবর্ধক এ গাছের সঙ্গে আমরা কমবেশি সবাই পরিচিত। এটি ঘরে অক্সিজেন সরবরাহ করে। তাছাড়া এ গাছের খুব বেশি পরিচর্যার দরকার নেই। এটি ঘরের কার্বন ডাই-অক্সাইড ও ফরমালডিহাইড এবং বেনজিন নামক টক্সিন শুষে নেয়।

স্নেক প্লান্ট
স্নেক প্লান্ট

পিস লিলি: পিস লিলি এই গাছটি ঘরের বাতাসকে ফিলটার করে বিশুদ্ধ করে তোলে। বেনজিন, ফর্মালডিহাইড, জাইলিন, অ্যামোনিয়া, টলিউইন এবং ট্রাইক্লোরোইথিলিন মত পদার্থ এই গাছটি দূর করে।

বোস্টন ফার্ন

প্রয়োজনীয় পানি দিলে ও সূর্যরশ্মি থেকে দূরে রাখলে এ গাছ আপনার ঘরের দূষণ নির্মূল করার নিশ্চয়তা দেবে। ফরমালডিহাইড ও জাইলিন পরিষ্কারক হিসেবে বাড়ি বা অফিসে রাখা যেতে পারে।

ইংলিশ আইভি
ইংলিশ আইভি

ইংলিশ আইভি

ঘরের বাতাস বিশুদ্ধ করায় ইংলিশ আইভি সবচেয়ে বেশি কার্যকর। টবে ইংলিশ আইভি লাগিয়ে জানালার ধারে বা দরজার পাশে রেখে দিন। সহনীয় তাপমাত্রা ও সামান্য সূর্যের তাপ পেলেই এরা ভালোভাবে টিকে থাকতে পারে। এটি ফরমালডিহাইড ও ছত্রাক নাশ করে।

ল্যাভেন্ডার
ল্যাভেন্ডার

ল্যাভেন্ডার

ল্যাভেন্ডার প্রাকৃতিক পরিষ্কারক উপাদান, যা বাতাস বিশুদ্ধ করে। তাছাড়া এটি ঘরে রাখলে ভালো ঘুম হয় ও উদ্বিগ্নতা কমে।

আরও কিছু পরিচিত গাছ যা ঘরের বাতাস দূষণমুক্ত করে বায়ু বিশুদ্ধ করে দিয়ে থাকে। যেমন স্পাইডার প্ল্যান্ট, মানি প্ল্যান্ট ইত্যাদি। মজার বিষয় হল এই গাছগুলো আপনি ঘরের ভেতরেই লাগাতে পারেন। আজকালকার দূষণভরা জীবনে নিজের অফিস ও ঘরকেই করে তুলুন সবচেয়ে বেশি স্বাস্থ্যকর।

সূত্রঃ বিবার্তা ২৪ ডট নেট / বণিক র্বাতা

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here