জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ফের জয়ার ঘরে?

এখন তিনি দুই বাংলার চলচ্চিত্রে দেদার ব্যস্ত। সফলতাও সেই মাপে ঘরে তুলছেন নিয়মিত।

সম্মানজনক জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের স্বাদ আগেও পেয়েছেন জয়া আহসান। সেটি অবশ্য চলচ্চিত্র ক্যারিয়ারের প্রথম দিকে। প্রথমে ‘গেরিলা’ পরে ‘চোরাবালি’তে অভিনয়ের জন্যে তিনি এই সম্মাননা পান। এখন তিনি দুই বাংলার চলচ্চিত্রে দেদার ব্যস্ত। সফলতাও সেই মাপে ঘরে তুলছেন নিয়মিত।

যার সর্বশেষ সংযোজন ঘটতে যাচ্ছে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার- ২০১৫ আসরের মধ্য দিয়ে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক সূত্র থেকে বাংলা ট্রিবিউন নিশ্চিত হয়েছে, এবার সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার পাচ্ছেন জয়া আহসান। আর এটি দেওয়া হচ্ছে অনিমেষ আইচের পরিচালনায় ‘জিরো ডিগ্রী’ ছবিতে অনবদ্য অভিনয়ের জন্য।এদিকে এমন খবরের সত্যতা ও অভিমত জানতে যোগাযোগ হয় জয়ার সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘ওমা! তাই না কি? আমাকে এখনও কেউ জানায়নি। তবে যদি পাই ভীষণ খুশি হবো।’

অনিমেষ আইচের পরিচালনায় ‘জিরো ডিগ্রী’
অনিমেষ আইচের পরিচালনায় ‘জিরো ডিগ্রী’

এদিকে একই ছবিতে অভিনয়ের জন্য সেরা অভিনেতার পুরস্কার পাওয়ার খবর মিলছে মাহফুজ আহমেদের নাম। তবে এই নামটির সঙ্গে যুক্ত হতে পারে ডি-কিং শাকিব খানও। সূত্র বলছে, যদি সেরা অভিনেতার পুরস্কার শেষ পর্যন্ত যৌথভাবে দেওয়া হয় তবে মাহফুজ আহমেদের সঙ্গে শাকিব খানও যুক্ত হবেন।

আর সেটি হবে এসএ হক অলীকের পরিচালনায় ‘আরও ভালো বাসবো তোমায়’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য।এদিকে এবারের আসরে আরও যারা পুরস্কার পাচ্ছেন তাদের নাম গেজেট আকারে প্রকাশের সম্ভাবনা রয়েছে ১২ মার্চ।

তবে তার আগেই বাতাসে ভাসছে জয়া আহসান, মাহফুজ আহমেদ, শাকিব খানদের নাম। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সংশ্লিষ্ট অনেকের মাধ্যমে জানা যাচ্ছে এবারের আসরে ঘুরে ফিরে বেশিরভাগ পুরস্কার যাচ্ছে অনিমেষ আইচের ‘জিরো ডিগ্রী’, শিহাব শাহীনের ‘ছুঁয়ে দিলে মন’, মোরশেদুল ইসলামের ‘অনিল বাগচীর একদিন’, এসএ হক অলীকের ‘আরও ভালো বাসবো তোমায়’সহ ভিন্ন ধারার বেশ ক’টি সিনেমার ঘরে।

জানা গেছে, আগামী মাসে (৩ এপ্রিল, চলচ্চিত্র দিবস) প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতিতে জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে এই পুরস্কার প্রদান করা হবে।

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার- ২০১৫ এর ১৩ সসদ্যের জুরি বোর্ডের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন তথ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব সরাফ উদ্দিন আহমেদ। এছাড়া সদস্য সচিবের দায়িত্বে আছেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান জাকির হোসেন। জুরি বোর্ডের সদস্যরা হলেন- তথ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন ও চলচ্চিত্র) মনজুরুর রহমান, অধ্যাপক সফিউল আলম ভূঁইয়া (চেয়ারম্যান, চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়), মতিন রহমান (চলচ্চিত্র পরিচালক), সুজেয় শ্যাম (সংগীত পরিচালক), চিন্ময় মুৎসুদ্দী (সাংবাদিক, চলচ্চিত্র গবেষক), মুজিবুর রহমান দুলু (চলচ্চিত্র সম্পাদক), মুনমুন আহমেদ (নৃত্যশিল্পী), পঙ্কজ পালিত (চিত্রগ্রাহক), এম এ আলমগীর (অভিনেতা), রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা (সংগীতশিল্পী), কেরামত মাওলা (শিল্প নির্দেশক)।

সূত্রঃ দৈনিক আজকালের খবর/এনজে

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here