টক দই খান,সুস্থ থাকুন

টক দই

নীলিমা দোলা

দই বলতে আমরা মূলত বুঝি মিষ্টি বা টক-মিষ্টি দই। কিন্তু স্বাদের দিক থেকে একটু কম হলেও টকদই আমাদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় বেশ কার্যকরী। এটি মিষ্টি এবং টক-মিষ্টি দইয়ের চাইতে আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য বেশী ভালো। প্রতিদিন মাত্র ১ কাপ টকদই খাওয়ার অভ্যাস নানা শারীরিক সমস্যা থেকে মুক্তি দেবে খুব সহজেই। টক দই খাবার উপকারিতা অনেক।

চলুল জেনে নেয়া যাক-

১. এটি শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।  ঠান্ডা লাগা , সর্দি ও জ্বর না হওয়ার জন্য এটি ভালো কাজ করে

২. টক দইয়ের উপকারী ব্যাকটেরিয়া ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়াকে মেরে ফেলে এবং শরীরের উপকারী ব্যাকটেরিয়াকে বাড়িয়ে হজম শক্তি বাড়ায় বা ঠিক রাখে।

৩. এতে ল্যাকটিক অ্যাসিড থাকার কারণে এটি কোষ্ঠকাঠিন্য, ডায়রিয়া ও কোলন ক্যান্সার এর রোগীদের জন্য উপকারী।

৪. দইয়ের ব্যাকটেরিয়া হজমে সহায়ক।  তাই এটি পাকস্থলীর জ্বালাপোড়া কমাতে বা হজমের সমস্যা কমাতে সাহায্য করে।

৫. এতে প্রচুর ক্যালসিয়াম, রিবোফ্লেভিন, ভিটামিন বি৫ ব বি১২  থাকার কারণে এটি খুব দরকারী একটি খাবার।

৬. দই হাড় ও দাঁতের গঠনে ও মজবুত করতে সাহায্য করে

৭. টক দই কম ফ্যাট যুক্ত দই।রক্তের ক্ষতিকর কোলেস্টেরল কমায়।
যাদের শরীরে দুধ সহনীয় নয়, তারা টক দই দুধের বিকল্প হিসাবে খেতে পারেন। কারণ দইয়ের ব্যাকটেরিয়া ল্যাক্টোজ  কে ভেঙ্গে ল্যাকটিক অ্যাসিড তৈরী করে।

৮. টক দই রক্ত শোধন করে

৯.উচ্চ রক্ত চাপের রোগীরা নিয়মিত টক দই খেলে রক্ত চাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেন

১০.ডায়বেটিস, হার্টের অসুখ এর রোগীরা নিয়মিত টক দই খেলে এসব অসুখ নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেন

১১. নিয়মিত টক দই খেলে তা অন্য খাবার থেকে পুষ্টি নিয়ে শরীরকে সরবরাহ করে।

১২. কম ফ্যাট যুক্ত টক দই একটি ভালো স্ন্যাকস, কারণ এটি খেলে পেট ভরা বোধ হয়। তাই পুষ্টিহীন খাবার বা বেশি ক্যালরি যুক্ত খাবার না খেয়ে পুষ্টিকর টক দই খেলে ওজন কমাতে সাহায্য করে। কারণ এতে আমিষ থাকে, যেহেতু আমিষ হজম হতে সময় লাগে, তাই পেট ভরা বোধ হয় ও শক্তি পাওয়া যায়। অতিরিক্ত খাবারও খেতে ইচ্ছা করে না।

১৩. এর পুষ্টি উপাদানগুলো হজমের সময় তাড়াতাড়ি শরীরে শোষিত হয়ে দ্রুত শরীরকে শক্তি দেয়

 

১৪ . টক দই শরীরে টক্সিন জমতে বাধা দেয় । তাই অন্ত্রনালী পরিষ্কার রেখে শরীরকে সুস্থ রাখে ও বুড়িয়ে যাওয়া রোধ বা অকাল বার্ধক্য করে। শরীরে টক্সিন কমার কারণে ত্বকের সৌন্দর্যও বৃদ্ধি পায়

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here