প্যারিসের নদীতে ভেসে…

গ্রীষ্মের সময় এর কাচের আবরণও খুলে দেয়া হয়, যাতে নদীর উদ্দাম বাতাসে ব্যায়ামের সব ক্লান্তি জুড়িয়ে যায় এর যাত্রীদের।

জিমে গিয়ে আপনি যে শক্তিটা ক্ষয় করেন, সেগুলো কিন্তু পারতপক্ষে কোনো কাজেই লাগে না। কিন্তু এত লোকের একসঙ্গে এতটা পরিশ্রমের ফলে উৎপন্ন শক্তিটাকে যদি ভালো কোনো কাজে লাগানো যেত। এমন ধারণা থেকেই তৈরি করা হয়েছে প্যারিস নেভিগেশন জিম প্রজেক্ট। ইতালিয়ান উদ্ভাবন ও ডিজাইন ফার্ম কার্লো রাততি অ্যাসসোচাতির নকশায় তৈরি এ জিম আদতে একটি জলযান, যা ভেসে বেড়াবে প্যারিসের সেইন নদীর এক মাথা থেকে আরেক মাথায়। জিমটি চলে এর ভেতরে ব্যায়াম করা সব লোকের ক্ষয় হওয়া শক্তি থেকেই। প্যারিস নেভিগেশন জিম প্রজেক্টের সঙ্গী হিসেবে আরো আছে ফিটনেস সরঞ্জাম তৈরির প্রতিষ্ঠান টেকনোজিম, টেরাফর্ম ওয়ান ও নগর পুনর্গঠনমূলক প্রতিষ্ঠান ইউআরবিইএম।

জলযানটির বর্তমান নকশা সেইন নদীতে বিংশ শতাব্দীর গোড়ার দিক থেকেই ঘুরে বেড়ানো ঐতিহ্যবাহী ফেরি বোট বাতু মুসের আদলে তৈরি করা হয়েছে। ২০ মিটার লম্বা এ বাহনটিতে একসঙ্গে ৪৫ জনের জায়গা হবে। এতে টেকনোজেমের সৌজন্যে উন্নত মানের সব ফিটনেস সরঞ্জাম রয়েছে। প্রতিটি ব্যায়ামের যন্ত্রের সামনেই জ্বলে থাকবে একটি করে পর্দা, যেখানে জিম করতে আসা লোকজন নিজেদের ক্ষয় হওয়া শক্তির কতটা জলযান পরিচালনায় কাজে লাগল আর কতটা সংরক্ষিত রইল, সেটা দেখতে পাবেন। এছাড়া সেইন নদীর প্রতি মুহূর্তের আবহাওয়াও এ পর্দায় দেখিয়ে দেয়া হবে, যার তথ্য জলযানটিতে লাগানো সেন্সরের মাধ্যমে সংগ্রহ করা হয়। জিমটির আশপাশ ও ছাদের বেশির ভাগ স্বচ্ছ কাচের আবরণে ঢাকা থাকায় এর কল্যাণে নদীতে ভেসে ভেসে প্যারিসকে এক অন্য রূপে দেখার সুযোগ পাবেন আরোহীরা। আর গ্রীষ্মের সময় এর কাচের আবরণও খুলে দেয়া হয়, যাতে নদীর উদ্দাম বাতাসে ব্যায়ামের সব ক্লান্তি জুড়িয়ে যায় এর যাত্রীদের। জিমটি চাইলে রাতের বেলার কোনো পার্টি কিংবা অন্য কোনো অনুষ্ঠানের জন্যও ভাড়া নেয়া যাবে।

জিমটি চাইলে রাতের বেলার কোনো পার্টি কিংবা অন্য কোনো অনুষ্ঠানের জন্যও ভাড়া নেয়া যাবে।
জিমটি চাইলে রাতের বেলার কোনো পার্টি কিংবা অন্য কোনো অনুষ্ঠানের জন্যও ভাড়া নেয়া যাবে।

প্যারিস জায়াগাটাই এমন, এখানকার স্বাস্থ্যকর আবহাওয়া ও লোভনীয় সব খাবারের ফাঁদে পড়ে ওজনটা নিজ থেকেই বেড়ে যায়। এ কারণেই হয়তো এ ভাসমান জিমও তৈরি করা হয়েছে প্যারিসেই, যাতে ব্যায়াম করতে গিয়ে প্যারিসের শোভা উপভোগের সুযোগ হাতছাড়া হয়ে না যায় আপনার। পাশাপাশি এ জিমের বদৌলতে প্যারিসের মজাদার সব খাবার থেকেও নিজেকে আর বঞ্চিত করার দরকার পড়বে না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here