বদভ্যাসেও বাড়তে পারে মেদ!

0
231

জিরো ফিগারের যুগে এসে পেটে এক ইঞ্চি বাড়তি মেদও যে কারও জন্য হতে পারে দুশ্চিন্তার বিষয়। অতিরিক্ত চিনি বা চর্বি গ্রহণ তো অবশ্যই মেদ বাড়ায়, একইসাথে আপনার কিছু অভ্যাসও হতে পারে পেটের বাড়তি মেদের কারণ। কি সেই বদভ্যাস যার কারণে আপনার স্বাস্থ্যের বারোটা বেজে যাচ্ছে? চলুন দেখে আসা যাক দৈনন্দিন জীবনের সেই শত্রুগুলোকেঃ

১. ডায়েট সোডা

আপনি যদি ভাবেন ডায়েট সোডা স্বাস্থ্যকর আর তাতে ওজন বাড়ে না, কাজেই ইচ্ছামতো ডায়েট সোডা পান করা যেতে পারে তাহলে ভুল করছেন। ডায়েট সোডায় সাধারণ সোডার মতোই ক্যালোরি এবং চিনি থাকে। এটি পেটের মেদ বাড়িয়ে দেয়।

২. ডেস্কের কাজ

ডেস্কে বসে কাজ করলে মেদ বাড়ে, বিশেষ করে পেটের। নারীরা এ সমস্যায় বেশি ভোগেন। তাই ডেস্কে কাজ করতে হলে একটানা বসে কাজ করবেন না।   1427434818908

৩. না ভেবে খাওয়া

ভারসাম্যপূর্ণ খাবার গ্রহণ না করা পেটের মেদ বাড়ানোর আরেকটি বড় কারণ। শরীরকে সুন্দর গঠনে এবং সুস্থ রাখতে ভারসাম্যপূর্ণ খাদ্যাভ্যাস জরুরি। অনেকেই রয়েছেন না ভেবেই যখন তখন অস্বাস্থ্যকর খাবার খেয়ে ফেলেন। এই অভ্যাস মেদ বাড়ানোর জন্য দায়ী।

৪. মনোযোগ দিয়ে না খাওয়া

অনেকে রয়েছেন মনোযোগ দিয়ে খাবার খান না। খাওয়ার সময় টেলিভিশন না দেখে বা অন্য কোনো কাজ না করে খাবারে মনোযোগ দেওয়া উচিত। মনোযোগ দিয়ে খাবার না খেলে পরিমাণের দিকে খেয়াল থাকে না। আর বেশি খাওয়া হয়ে যায়।

৫. রাতের পার্টি

শরীরের মেদ বাড়ার আরেকটি বড় কারণ হলো রাতের পার্টিতে খাওয়া-দাওয়া। এই ধরনের পার্টিতে খাবারের আধিক্য থাকায় শরীরে ক্যালোরি বেড়ে যায়। এসব অভ্যাস পেটের মেদ বাড়ায়। এ ধরনের পার্টিতে গেলে ভাজাপোড়া খাবার এবং মদ্যপান করা এড়িয়ে চলুন।

নিজের স্বাস্থ্যের সুরক্ষা তো নিজেকেই করতে হবে। তাই এই অভ্যাসগুলো যত দ্রুত সম্ভব পরিহার করুন নিজের ভালোর জন্যই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here