বাসা বদলানোর সুবিধার্থে গুরুত্বপূর্ণ কিছু টিপস

0
191
যারা ভাড়া বাসায় থাকেন তাদের সবারই বাসা বদলাতে হয়

যারা ভাড়া বাসায় থাকেন তাদের সবারই বাসা বদলাতে হয়। এক বাসায় গ্যাসের সমস্যা তো অন্যটায় পানি থাকেনা। আবার পরিবারের সদস্যদের আরামের কথা চিন্তা করে একটু বড় বাসা নেয়ার কথা ভাবতে গেলেও বাসা বদলাতে হয়। আর এই বাসা বদলানোটা বিশাল এক ঝামেলার কাজ।

একটু গুছিয়ে কাজ করলেই কিন্তু বাসা বদলানো নিয়ে তেমন ঝক্কি ঝামেলা পোহাতে হয় না। একটির পর একটি কাজ ধাপে ধাপে এগিয়ে নিলে বেশ সহজেই এতো বড় ঝামেলার কাজটা সম্পন্ন করে ফেলা যায়। আসুন দেখে নেয়া যাক বাসা বদলানোর আগের কিছু কাজঃ

ইন্টারনেট ও ফোন
বাসা বদলানোর অন্তত এক সপ্তাহ আগে আপনার ইন্টারনেট ও ল্যান্ড ফোনের অফিসে যোগাযোগ করে রাখুন। তাদেরকে নতুন ঠিকানা জানিয়ে দিন। তাহলে নতুন বাসায় গিয়ে ইন্টারনেট কিংবা ফোনের সংযোগ নিয়ে বিভ্রাটে পড়তে হবে না।

ভ্যান/পিকআপ/ট্রাক ভাড়া
বাসার জিনিসপত্র নেয়ার জন্য ভ্যান তো লাগবেই। আপনার বাসার জিনিসের পরিমাণ অনুমান করে আগে থেকেই ভ্যান ঠিক করে রাখুন। কারণ শেষ মূহূর্তে ভ্যান পেতে সমস্যা হতে পারে। বাসা কিছুটা দূরে নিয়ে থাকলে পিকআপ ভাড়া করতে পারেন। আর এক শহর থেকে অন্য শহরে বাসা বদলালে ট্রাক ভাড়া করে নিলে সুবিধা হবে। ভ্যান, পিকআপ কিংবা ট্রাক যেটাই ভাড়া করে থাকেন, আগে থেকেই তাদেরকে বাসা বদলানোর সময় ও আপনার বর্তমান বাসার ঠিকানা জানিয়ে দেবেন। বাসা বদলানোর আগের দিন রাতে ফোন দিয়ে আবার একটু মনে করিয়ে দিবেন তাদেরকে। তাহলে তারা সময় মত এসে পড়বেন।

নতুন বাসা পরিষ্কার
নতুন ভাড়া নেয়া বাসাটিতে আগেই গিয়ে দরজা-জানালার পর্দার মাপ নিয়ে এসে কয়েক দিন আগেই সেলাই করতে দিয়ে দিন। বাসায় ওঠার ১/২ দিন আগে গিয়ে দেখুন বাসা ময়লা অবস্থায় আছে কিনা। বাসায় ধুলাবালি থাকলে সেগুলো পরিষ্কার করিয়ে নিন। রঙ করা না থাকলে বাড়ির মালিককে বলুন রঙ করে দিতে। বাথরুমগুলোকে পরিষ্কার করিয়ে নিন আগে থেকেই।

প্যাকিং করুন

সবাই মিলে কিছু কিছু করে কাজ করলে একজনের উপর অতিরিক্ত কাজের চাপ পড়েনা।
সবাই মিলে কিছু কিছু করে কাজ করলে একজনের উপর অতিরিক্ত কাজের চাপ পড়েনা।

প্যাকিং এর জন্য বস্তা, দড়ি, টেপ ও কাগজের বাক্স (কার্টন) এনে রাখুন অনেক গুলো। এরপর ৫/৬ দিন আগেই নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসগুলো ছাড়া অন্যান্য জিনিসপত্রগুলো প্যাকিং করে ফেলুন। প্যাকিং করার সময় কোন বাক্সে কি রেখেছেন সেটা একটা তালিকা তৈরি করে বাক্সের গায়ে আঠা দিয়ে লাগিয়ে রাখুন। জিনিসপত্র খুঁজে পেতে সুবিধা হবে।

কাঁচের জিনিসপত্র বাক্সে ভরার আগে কাপড়ে পেঁচিয়ে নিন
বাসা বদলানোর ১/২ দিন আগে নিত্যপ্রয়োজনীয় জরুরী জিনিস গুলো বাক্সে ভরে ফেলুন। প্রতিটা বাক্সের মুখ ভালো করে টেপ দিয়ে লাগিয়ে নিতে হবে। মূল্যবান গহনা, টাকা কিংবা দলিল নিজের হাত ব্যাগে রাখুন। এগুলো অন্য মালপত্রের সাথে দিলে হারিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকবে।

রান্নাঘর সামলিয়ে নিন
বাসা বদলানোর ৩/৪ দিন আগে থেকেই ধীরে ধীরে ফ্রিজ খালি করা শুরু করুন। ফ্রিজের কাঁচা বাজারগুলো রান্না করে ফেলুন। অন্যান্য সহজে নষ্ট হয়ে যাওয়ার মত খাবার গুলো খেয়ে ফেলুন আগেই। আর বাসা বদলানোর আগের দিন একবারে বেশি করে রান্না করে ফেলুন। কারণ যেদিন বাসা বদলাবেন সেদিন আর রান্না-বান্না করার সময় পাবেন না। তাই এমন খাবার বানিয়ে নিন যেগুলো বেশিক্ষন ভালো থাকে এবং নতুন বাসায় গিয়ে গরম না করেই খাওয়া যাবে।
বাসা বদলানোর আগের দিন খাওয়ার পানিও ফুটিয়ে নিন বেশি করে। কারণ নতুন বাসায় গিয়ে চুলা লাগাতে একটু কিছুটা সময় লাগে। এই সময়টাতে খাওয়ার জন্য পানি ফুটিয়ে আগেই বোতলে ভরে রেখে দিন।

বাসা বদলানোর কাজ একার পক্ষে করাটা বেশ কষ্ট। পরিবারের সবাইকে বলুন আপনাকে সাহায্য করতে। সবাই মিলে কিছু কিছু করে কাজ করলে একজনের উপর অতিরিক্ত কাজের চাপ পড়েনা।

তথ্যসূত্রঃ হোম ট্রিক্স ডট কম

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here