মিথ্যা চেনার উপায়

0
253

গবেষণা বলছে,  যারা হরহামেশা মিথ্যা বলেন তাদের মিথ্যার প্রায় ৮০ শতাংশই টের পাওয়া যায়। মানে বুঝতে পারা যায়। গবেষণা আরো বলছে, শিশুরা সাধারণত শাস্তি থেকে বাঁচতে  মিথ্যা বলে। অনেকে বড় হলেও সেই মিথ্যা বলার অভ্যাস তার মধ্যে থেকে যায়। আর যখনই তারা কোনো সমস্যায় পড়েন মিথ্যার আশ্রয়কেই তারা শ্রেষ্ঠ মনে করেন।

পৃথিবীতে এতকিছু আবিষ্কার হলেও মিথ্যা ধরার যন্ত্র রয়েছে ধরাছোঁয়ার বাইরে। তবে মিথ্যা ধরার যন্ত্র নাই ঠিক, কিন্তু উপায় নিশ্চয়ই আছে। জেনে নিতে পারেন সেসব উপায়-

* প্রথমেই আপনাকে মিথ্যা বলা ব্যক্তির উপর ভালোভাবে নজর রাখতে হবে। মানে তার আচার-আচরণ লক্ষ্য করতে হবে। যাতে তার কথা বলার সমস্ত দিকগুলো নজরে আসে। সাধারণ কথা বলা ও মিথ্যা কথা বলার সময় তার পরিবর্তন বুঝতে পারবেন।

* মিথ্যা ধরার মোক্ষম হাতিয়ার চোখ। মিথ্যাবাদীর চোখে চোখ রেখে কথা বলুন। দেখুন উনি আপনার চোখে চোখ রাখতে ইতস্তত করছেন। তাই তার চোখের দিকে তাকিয়ে প্রশ্ন করুন।

* মিথ্যা বলার সময় দেখবেন একই কথা বারবার চলে আসছে। মানে বারবার বলে কথাটা সত্যতে পরিণত করতে চাচ্ছেন।

* মিথ্যা বলার সময় শারীরিক অঙ্গ-ভঙ্গীরও বেশ পরিবর্তন হয়। কেউ হাত কচলাতে থাকেন কারো আবার পা কাঁপে। তাই শারীরিক অঙ্গ-ভঙ্গীর দিকে খেয়াল রাখুন।maxresdefault-1

* মিথ্যা বলার সময় অনেকের কণ্ঠস্বরের পরিবর্তন হয়। তাই কণ্ঠস্বরের দিকেও খেয়াল রাখুন। দেখবেন কেউ উঁচুস্বরে কথা বলছেন আবার কেউবা নিচুস্বরে কথা বলছেন। অনেক সময় মিথ্যা বললে কণ্ঠ ভেঙেও যায়।

* অনেকে মিথ্যা বলার সময় কথা হাতড়ে বেড়াতে থাকেন। সাধারণত কথার মধ্যে জড়তা চলে আসে। মস্তিষ্ক মিথ্যা বলার বিষয়টা আগে থেকে টের পায়না বলে সে ঠিকমত সাড়া দিতে পারে না। তাই মিথ্যাবাদীরা কথা হাতড়ে বেড়ান। মিথ্যা কথা শোনার সময় তার কথা বলার ধরনটা খেয়াল করুন। দেখবেন আপনি বুঝতে পারছেন তিনি মিথ্যা বলছেন, নাকি সত্য বলছেন।

* মিথ্যা বলার সময় দেখবেন কেউ কেউ নিজেকে লুকাতে চেষ্টা করছেন। এ জন্য বারবার নিজেকে আড়াল করতে চান।

* মিথ্যা কথা বলার সময় কথা বলার স্বাভাবিক ছন্দে ব্যাঘাত ঘটবে। লম্বা শ্বাস নিয়ে তারপর সে কথা বলা শুরু করবেন, মানে একটা প্রস্তুতি নিয়ে তারপর কথা বলবেন।

* মিথ্যা কথাকে সত্যে পরিণত করতে চোখে পানি আনতেও ওস্তাদ মিথ্যাবাদীরা। তাই এই বিষয়টাও খেয়াল করবেন। কথাটা কতটা দুঃখের তা বুঝে খেয়াল করবেন সত্যিই কি চোখে পানি আসার মত ঘটনা। তাহলেই বুঝবেন কথাটা সত্য নাকি মিথ্যা।

* মিথ্যাটা যদি অনেক বেশি ভয়ঙ্কর হয় তাহলে দেখবেন তিনি ঘেমে নেয়ে একাকার হবেন। বারবার গলা পরিষ্কার করবেন। তাহলেই বুঝবেন তিনি মিথ্যা বলছেন।

সত্য-মিথ্যা বুঝতে শিখুন, ব্যক্তি, পারিবারিক ও সামাজিক জীবনে আপনি লাভবান হবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here