যে সবজি কোলেস্টেরল কমিয়ে মেদ ঝরায়

প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় মিষ্টি কুমড়া রাখা জরুরি।

মিষ্টি কুমড়া  একটি সবজির নাম। পুষ্টিগুণে ভরা এ সবজি দেহের রোগ প্রতিরোধ করে। কুমড়ার ভিটামিন-এ চোখকে কর্নিয়া থেকে রক্ষা করে থাকে। এ সবজি শরীরের কোলেস্টেরল কমিয়ে মেদ ঝরাতে সাহায্য করে।

এটি মানবদেহের সুস্থ ত্বক গঠনে সাহায্য করে। এ সবজিতে ক্যারটিনয়েড নামক উপাদান আছে, যা চোখে ছানি পড়া ও যেকোনো বয়সে চোখের সমস্যা হওয়ার ঝুঁকি থেকে রক্ষা করে থাকে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, মিষ্টি কুমড়ায় ভিটামিন-এ, বি-কমপ্লেক্স, সি, ই, পটাশিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, আয়রন, জিংক, ফ্লেভনয়েড পলি-ফেনলিক, অ্যান্টিঅক্সিডেণ্ট উপাদান সমূহ যেমন লিউটিন, জ্যানথিন এবং আরো অনেক উপাদান রয়েছে। কুমড়া ক্যালোরিও বেশ কম থাকে। তাই দেরি না করে প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় মিষ্টি কুমড়া রাখা জরুরি।

অ্যান্টি অক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ হওয়ায় কোলেস্টেরল কম রাখতে সাহায্য করে।
অ্যান্টি অক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ হওয়ায় কোলেস্টেরল কম রাখতে সাহায্য করে।

মিষ্টি কুমড়ায় আর কী কী উপকারিতা রয়েছে তা নিম্নে আলোচনা করা হল :

* অ্যান্টি অক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ হওয়ায় কোলেস্টেরল কম রাখতে সাহায্য করে।

* কুমড়াতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি আছে। যা সর্দি-কাশি, ঠাণ্ডা লাগা প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে।

* কুমড়ার ক্যালরির পরিমাণ খুব কম। আর ফাইবারের পরিমাণ বেশি থাকায় হজমে সহায়ক।

* কুমড়া ক্যানসার প্রতিরোধে সাহায্য করে, কারণ এটা অ্যান্টি অক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ।

* কুমড়াতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ রয়েছে।

* গাজরের তুলনায় কুমড়ায় প্রচুর পরিমাণে বিটা ক্যারোটিন রয়েছে। যা চোখের জন্য ভালো।

* ভিটামিন এ চকচকে ও উজ্জ্বল চুল এবং ত্বকের জন্য উপকারী। তাই কুমড়া খাওয়া অত্যন্ত জরুরি।

* কুমড়াতে প্রচুর পরিমাণে ম্যাগনেশিয়াম ও ভিটামিন সি রয়েছে।

* এটা ডিপ্রেশন কম রাখতে সাহায্য করে।

* কুমড়ায় প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম বিদ্যমান থাকায় হাইপারটেশন হওয়ার চান্স খুব কম।

এছাড়া কুমড়ার স্যুপ খেতে পারেন। গরম ভাতের সঙ্গে খেতে পারেন মিষ্টি কুমড়ার তরকারি ও ভর্তা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here