শরীরী বাঁধাকে জয় করা ৫ শিল্পী

0
328
শরীরের যেকোনো বাঁধাকে জয় করেও নিজের প্রতিভার বিকাশ ঘটানো যায়

আমরা যারা শারীরিকভাবে সম্পূর্ণ সুস্থ তারা কখন কখন মাথা ব্যথা হলে বা হাত-পা ব্যথা করলে একদম অস্থির হয়ে যাই। চোখে একটু ঝাপসা দেখলেই দৌড় দেই ডাক্তারের কাছে। হাত কেটে গেলে পরীক্ষার সময় সাথে রাখি শ্রুতি লেখক। অথচ যাদের জন্ম থেকেই হাত বা পা নেই, কিংবা যারা মানসিকভাবে আর দশজনের মত এগিয়ে যাননি তাদের কথা একটু ভাবুন তো। আমাদের দেশের প্রেক্ষাপটে সাধারণভাবে ভাবলে এরকম মানুষেরা ভিক্ষা করে অন্যের দয়ায় চলবে এমন নিয়তিতেই আমরা এবং সেই প্রতিবন্ধীর পরিবারের লোকেরা অভ্যস্ত। তবে শরীরের যেকোনো বাঁধাকে জয় করেও যে নিজের প্রতিভার বিকাশ ঘটানো যায়, পৃথিবীর বুকে নিজের একটি স্বকীয় ও শক্তিশালী পরিচয় রেখে যাওয়া যায় এমনই ৫ জন শিল্পীর গল্প নিয়ে আমাদের আজকের আয়োজন।

স্টিফেন ওয়াইল্টশায়ার
স্টিফেন ওয়াইল্টশায়ার

স্টিফেন ওয়াইল্টশায়ার

প্রতিবন্ধকতাঃ অটিস্টিক

১৯৭৪ সালে লন্ডনে জন্ম গ্রহণ করা ওয়াইল্টশায়ার একজন অটিস্টিক এবং তার বড় পরিচয় তিনি একজন বিখ্যাত স্থাপত্য শিল্পী। ৯ বছর বয়সে প্রথম কথা বলেন তিনি আর ১০ বছর বয়সেই হাতে তুলে নেন তুলি।সেই থেকে তাঁর শিল্পী জীবনের শুরু। সম্প্রতি ১৮ ফুট দৈর্ঘ্যের একটি প্যানারমিক ল্যান্ডস্কেপ এঁকে বিশ্বব্যাপী খ্যাতি লাভ করেন তিনি।

মারিয়া ইলিওউ
মারিয়া ইলিওউ

মারিয়া ইলিওউ

প্রতিবন্ধকতাঃ অটিস্টিক

মারিয়া ইলিওউ একজন গ্রিক শিল্পী যিনি অটিজম স্পেক্ট্রাম ডিসঅর্ডারে ভুগছেন। তিনি থাকেন নিউ ইয়র্কের লং আইল্যান্ডে। মারিয়া অটিজম আক্রান্ত ব্যক্তিদের অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে অ্যাডভোকেট হিসেবে কাজ করছেন।

জোসেফের আঁকা ছবি
জোসেফের আঁকা ছবি

জোসেফ কার্টিন

প্রতিবন্ধকতাঃ বাইপোলার

বাইপোলার এক ধরণের মস্তিষ্কের রোগ যাতে মুহুর্মুহু রোগীর মানসিক অবস্থার পরিবর্তন হয়। এই অবস্থার সাথে লড়াই করে চলা এক শিল্পী জোসেফ কার্টিন। ব্রুকলিনে বসবাসরত এই শিল্পী ১৯৯০ সাল থেকে চিকিৎসার মধ্যে রয়েছেন এবং নিজেকে তিনি “সাইক্রিয়াটিক সারভাইভার” বলে পরিচয় দিতে বেশি পছন্দ করেন। অসংখ্য আর্ট কম্পিটিশনে জয়ী হওয়া জোসেফ বর্তমানে কর্পোরেট ডিজাইনার হিসেবে কর্মরত আছেন।

পিটার লংস্টাফ
পিটার লংস্টাফ

পিটার লংস্টাফ

প্রতিবন্ধকতাঃ দুই হাত নেই

পিটার একজন পা শিল্পী। তিনি তাঁর যাবতীয় শিল্পকর্ম এঁকেছেন শুধুমাত্র ২টি পা ব্যবহার করে। দুই হাত না থাকা সত্ত্বেও তিনি তিনি আর দশজন মানুষের মত স্বাভাবিক জীবনযাপন করছেন। ডান পাকে তিনি ডান হাতের মত করে ব্যবহার করেন। বাড়িতে কেউ এলে ডান পা দিয়ে নিজেই দরজা খুলে দেন তিনি।

কিথ স্যামন
কিথ স্যামন

কিথ স্যামন

প্রতিবন্ধকতাঃ অন্ধ

অন্ধত্বকে জয় করে একাধারে শিল্পী ও পর্বতারোহী হওয়ার মত দৃঢ় মনোবল দেখিয়ে নিঃসন্দেহে পুরো পৃথিবীর কাছে নিজেকে একজন বিস্ময় হিসেবে উপস্থাপন করেছেন কিথ স্যামন। তিনি স্কটল্যান্ডের ১০০ এরও বেশি পর্বতে আরোহণ করেছেন। ২০০৯ সালে তিনি ল্যান্ডস্কেপ পেইন্টিং এর জন্য  “স্কটিশ জলম অ্যাওয়ার্ড” অরজন করেন।

তথ্যসূত্রঃ ওয়েব ডিজাইনার পট ডট কম

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here