শীতে যে কাজগুলো করা উচিত নয়

0
170
শীতে হাতে পায়ের যত্নে মশ্চারাইজার যুক্ত লোশন ব্যবহার করুন।

হালকা কুয়াশায় মোড়া শীতের সকাল আর মৃদু হিমেল হাওয়া সত্যি উপভোগ্য। কিন্তু সঠিক যত্ন আর অলসতার কারণে আমরা নিজের অজান্তে ত্বকের মারাত্মক কিছু ক্ষতি করে থাকি। যা করা মোটেও ঠিক নয়। আসুন জেনে নেই শীতে যে কাজগুলো করা একদমই উচিত নয়ঃ

সানস্ক্রিন ব্যাবহার না করাঃ

অনেকে মনে করেন যে শীতের দিনে সানস্ক্রিন ব্যাবহার করার কোনো কারন নেই। শীতের দিনের রোদও আপনার ত্বকের অনেক ক্ষতি করতে পারে। তাই শীতকালেও বাইরে বের হবার ৩০ ‍মিনিট আগে সম্পুর্ন মুখে, গলায় ও হাতে ভালোভাবে এসপিএফ ১৫-৩০ সম্পন্ন সানস্ক্রিন লাগিয়ে নিন। এতে আপনার ত্বক রুক্ষতা থেকে দূরে থাকবে।

লিপজেল ব্যাবহার না করাঃ

শীতের সময় ঠোঁট ফেটে যায় বলে অনেকেই জিভ দিয়ে বারবার ঠোঁট ভিজিয়ে থাকেন। কিন্তু এটা কখনোই উচিত নয়। দীর্ঘক্ষণ ঠোঁটের আদ্রতা বজায় রাখছে লিপ আইস অথবা লিপজেল ব্যবহার করুন। এছাড়া লিপ্সটিক লাগালে অবশ্যই তার আগে ঠোঁটে লিপজেল লাগিয়ে নিবেন।

প্রতিদিন অন্তত ৮ গ্লাস পানি পান করা দরকার।
প্রতিদিন অন্তত ৮ গ্লাস পানি পান করা দরকার।

এতে লিপ্সটিক ঠোঁটে বেশীক্ষন ধরে রাখতে সাহায্য করবে। এছাড়া ঠোঁট ফাটলে কয়েক ফোঁটা অলিভ অয়েল ও মধু একসাথে মিশিয়ে ঘুমানোর আগে ঠোঁটে লাগিয়ে রাখুন। এতে দ্রুত ঠোঁট ফাটা সেরে যায় এবং ঠোঁট অনেক কোমল থাকে।

ময়শ্চারাইজার ব্যাবহার না করাঃ 

শীতে হাতে পায়ের যত্নে মশ্চারাইজার যুক্ত লোশন ব্যবহার করুন। প্রতিদিন গোসল করার পর হাত পা একটু ভেজা থাকতেই লোশন লাগিয়ে নিন। রাতে ঘুমানোর আগে লোশন লাগিয়ে পায়ে সুতি মোজা পরে নিতে পারেন। এতে ত্বক কখনো শুষ্ক হবে না।

পরিমিত পানি পান না করাঃ

শীতে অনেকই পরিমিত পানি পান করেন না। এটি মোটেও উচিত নয়। প্রতিদিন অন্তত ৮ গ্লাস পানি পান করা দরকার।

তথ্যসূত্ঃ বিউটি কেয়ার ডট কম

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here