শুধু রূপচর্চা নয় যে তিন খাবারে রয়েছে দীর্ঘায়ুর নিশ্চয়তা!

সম্প্রতি তারা জানিয়েছেন অলিভ অয়েল, বাদাম ও অ্যাভাকোডা— এ তিন খাবারে রয়েছে দীর্ঘায়ুরও নিশ্চয়তা।

চেহারায় বয়সের ছাপ দূর করতে যে ফলগুলো খাবেন, সেগুলো হচ্ছে- অ্যাভাকোডা, বাদাম এবং অলিভ অয়েল।
অ্যাভোকাডো
অ্যাভোকাডোতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন-ই ও বি। এসব ভিটামিন ত্বকের গভীর থেকে পুষ্টি জোগায়। তাছাড়া ভিটামিন-ই ত্বক সুস্থ রাখে এবং ত্বকে পানির মাত্রাও ঠিক রাখে। এর ফলে ত্বক থাকে বলিরেখামুক্ত এবং বয়সের ভারে ত্বক কুঁচকে যায় না।

অ্যাভোকাডো
অ্যাভোকাডো

বাদাম
বাদামে আছে উচ্চমাত্রার ক্যাটালাস। এই এনজাইম ত্বকের অনুজ্জ্বলতাকে দূরে সরিয়ে রাখে।
অলিভ অয়েল
সারা বিশ্বে যত রকম ভোজ্য তেল রয়েছে তার মধ্যে স্বাস্থ্যকর তালিকার দিক থেকে শীর্ষস্থান দখল করে আছে অলিভ অয়েল। রূপচর্চা থেকে চুলের যত্নে অলিভ অয়েল অনেক বেশি উপকারি।
এসব ফল ত্বককে রাখে স্বাস্থ্যোজ্জ্বল। এমন তথ্য জানিয়েছেন একদল গবেষক।

বাদাম
বাদাম

এতদিন এই তিনটি ফলের ব্যবহার সম্পর্কে ঠিক এমনই ছিল আমাদের ধারণা। তবে সেই ধারনাকে বদলে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়াভিত্তিক স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটির গবেষকরা। সম্প্রতি তারা জানিয়েছেন অলিভ অয়েল, বাদাম ও অ্যাভাকোডা— এ তিন খাবারে রয়েছে দীর্ঘায়ুরও নিশ্চয়তা।
খাদ্য তিনটির মধ্যে স্বাস্থ্যকর মনো-আল্ট্রাস্যাচুরেটেড ফ্যাট নামে স্নেহজাতীয় পদার্থ রয়েছে প্রচুর, যা মানুষেরআয়ু বাড়ানোয় কার্যকর। তবে এর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াও রয়েছে। মনো-আল্ট্রাস্যাচুরেটেড ফ্যাট শুধু আয়ু বাড়ায় না, একই সঙ্গে বাড়িয়ে দেয় দেহের ওজনও। খবর ডেইলি মেইল।

অলিভ অয়েল
অলিভ অয়েল

বিশেষজ্ঞদের এ-বিষয়ক গবেষণা নিবন্ধ প্রকাশ হয়েছে ‘নেচার’ জার্নালে। নিবন্ধে গবেষকরা দাবি করেন, জীবন দীর্ঘায়িত করে তোলায় কার্যকর ম্যাজিক পানীয়টি আমাদের অনেকের ঘরের কাবার্ডেই রয়েছে, আর তা হলো অলিভ অয়েল। এতে মনো-আল্ট্রাস্যাচুরেটেড ফ্যাট নামে প্রচুর পরিমাণে থাকা স্নেহজাতীয় পদার্থটি শতায়ু করে তুলতে পারে আমাদের অনেককেই। তবে যেসব প্রাণীকে অলিভ অয়েল খাইয়ে পরীক্ষাটি চালানো হয়েছে, অন্যগুলোর তুলনায় সেগুলো দীর্ঘায়ু পেয়েছে বেশি। আবার দীর্ঘায়ুর সঙ্গে সঙ্গে এসব প্রাণীর মধ্যে দেখা গেছে মুটিয়ে যাওয়ার প্রবণতাও।
শুধু অলিভ অয়েল নয়, অ্যাভাকোডা ও বাদামেও দেখা গেছে মনো-আল্ট্রাস্যাচুরেটেড ফ্যাটের প্রাচুর্য।গবেষকদের নতুন এ আবিষ্কারটি কিছুটা বিস্ময়করও বটে! কারণ স্নেহজাতীয় উপাদানটির কারণে সংশ্লিষ্ট প্রাণীগুলোকে কিছুটা স্থূলও হয়ে উঠতে দেখা গেছে। আর হূদরোগ বা ডায়াবেটিসের মতো রোগের জন্ম দিয়ে স্থূলতা যে অকালমৃত্যুর কারণ হয়ে উঠতে পারে, সে বিষয়টিও এখন সর্বজনস্বীকৃত।
গবেষকরা মনে করছেন, শুধু প্রাণী নয়, মানুষের মধ্যেও পরীক্ষা চালালে উল্লিখিত গবেষণাটির মতো একই ফল আসবে। কারণ আমাদের দেহের কার্যকারণ প্রণালিও ধরতে গেলে প্রায় একই রকম।
দীর্ঘায়ুতে মনো-আল্ট্রাস্যাচুরেটেড ফ্যাটের এ অবদান প্রসঙ্গে স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটির স্কুল অব মেডিসিনের গবেষকদের ধারণা, দেহকোষের বুড়িয়ে যাওয়ার লক্ষণগুলো প্রশমনের মাধ্যমে আয়ু বাড়ানোয় ভূমিকা রাখে উপাদানটি। এছাড়া শরীরে খাদ্য থেকে দ্রুত শক্তিগ্রহণের বিষয়টিও নিশ্চিত করে মনো-আল্ট্রাস্যাচুরেটেড ফ্যাট।
গবেষণাটি থেকে দক্ষিণ ইউরোপভুক্ত দেশগুলোর বাসিন্দাদের দীর্ঘায়ু হওয়ার রহস্য অনেকটাই পরিষ্কার হয়ে ওঠে। আর সেটি হলো— অলিভ অয়েল। এসব দেশের বাসিন্দাদের খাদ্যতালিকার নিয়মিত অনুষঙ্গ হচ্ছে অলিভ অয়েল।

সূত্রঃ বণিক বার্তা

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here