সবচেয়ে দামি স্নিকার্স পেতে!

সবচেয়ে দামি স্নিকার্স।

অনেকেই হয়তো খবরটি পাননি! যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষ ব্র্যান্ড ‘অ্যাথলেটিক প্রপালসন ল্যাবস’ (এপিএল) সম্প্রতি নতুন একজোড়া স্নিকার্স উপস্থাপন করেছে, যার সদৃশ জুতা সম্ভবত এর আগে কেউ দেখেনি। কুমিরের চামড়া থেকে তৈরি এ জুতাজোড়া ২৪ ক্যারেট স্বর্ণে ডোবানো হয়েছে। সীমিত সংস্করণের পণ্যটি এরই মধ্যে সবচেয়ে দামি স্নিকার্সের উপাধি পেয়েছে।

২০০৯ সালে অ্যাডাম ও রায়ান গোল্ডস্টোন নামে দুই যমজ ভাইয়ের অংশীদারিত্বে প্রতিষ্ঠিত হয় এপিএল। শুরু থেকেই তারা স্পোর্টসওয়্যারের দিকে বেশি মনোযোগ দেন। নারী-পুরষ উভয়ের জন্য তৈরি এ কোম্পানির জুতা ও আনুষঙ্গিকের বৈপ্লবিক আবর্তনের জন্য ভোক্তাদের কাছে এর পরিচিতির পরিধি ব্যাপক। সাম্প্রতিক স্নিকার্সটি অভিনব, কারণ কুমিরের চামড়া এর আগে স্নিকার্সে ব্যবহার হয়নি। বলা হচ্ছে, নমনীয় ও দীর্ঘস্থায়ী। সূক্ষ্ম ফিনিশিংয়ের জন্য তাতে স্বর্ণের প্রলেপ দেয়া হয়েছে।

তাছাড়া কুমিরের চামড়াকে কাঁচামাল ভেবে জুতা তৈরির ধারণাটি একদিনে আসেনি। এপিএলের এ স্নিকার্স দুই বছরের দীর্ঘমেয়াদি প্রক্রিয়ার ফলাফল। তবে বিশেষত্ব এখানেই শেষ নয়, এমন দামি জুতা পরতে হলে আগে অর্ডার দিয়ে বানিয়ে নিতে হবে। কিনেই পরার সুযোগ নেই। শতভাগ দাম পরিশোধ করে নিজের পছন্দের ডিজাইন দিয়ে ধৈর্যসহকারে অপেক্ষা করতে হবে ১২ সপ্তাহ। অর্ডার করতে খরচ পড়বে ২০ হাজার মার্কিন ডলার, যা আমাদের দেশের টাকার হিসাবে প্রায় ১৫ লাখ ৮৭ হাজার। স্নিকার্সটি এরই মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে দুবাইয়ের লেভেল শো ডিস্ট্রিক্টে। শিগগিরই তা কোম্পানির ওয়েবপেজ এপিএল রানিং ডটকমে বিক্রি হবে বলে জানা গেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here