স্মৃতিশক্তি নষ্টের কারণ এগুলোও

গবেষকেরা বলেন, মানসিক ও শারীরিক দুভাবেই সুস্থ থাকা জরুরি।

কিছু কাজ ও খাবার আছে যা খেলে স্মৃতিশক্তি প্রখর হয়, আবার কিছু কাজ ও খাবার স্মৃতিশক্তি কমিয়ে দেয়। গবেষকেরা বলেন, মানসিক ও শারীরিক দুভাবেই সুস্থ থাকা জরুরি।

অপর্যাপ্ত ঘুম

স্মৃতিশক্তি তীক্ষ রাখতে চাইলে ভালো ঘুমের বিকল্প নেই। রাতে যদি নিয়মিত ঘুম না হয় তাহলে মস্তিষ্কে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয় এবং এতে স্মৃতিবিধ্বংসী রোগের সৃষ্টি হতে পারে। তাই অকালে স্মৃতিশক্তি হারাতে না চাইলে নিয়মিত সাত থেকে আট ঘণ্টা ঘুমের পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

দূষণ

সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা যায়, দূষিত এলাকায় বসবাসকারী নারীদের মাঝে স্মৃতিভ্রংশ রোগে আক্রান্তের হার বেশি। তবে পরিষ্কার ও দূষণমুক্ত এলাকায় এ রোগের হার কম। দূষিত পদার্থ নানাভাবে আমাদের দেহে প্রবেশ করে স্মৃতিশক্তি নষ্ট করে।

অস্বাস্থ্যকর খাবার

আপনি কী খাচ্ছেন, এর ওপরও নির্ভর করে আপনার স্মৃতিশক্তি। আপনি যদি অস্বাস্থ্যকর খাবার খান, তাহলে স্মৃতি দুর্বল হয়ে পড়বে। একইভাবে আপনি যদি রাতে দেরি করে খান এবং অতিরিক্ত খান তাহলেও স্মৃতিশক্তি দুর্বল হয়ে পড়বে।

সামুদ্রিক খাবার

সামুদ্রিক অনেক খাবারে অতিমাত্রায় পারদ থাকে, যা মস্তিষ্কের জ্ঞান আহরণ বিষয়টিকে বাধাগ্রস্ত করে। প্রতি সপ্তাহে যদি তিনটির বেশি টুনা বা অন্য সামুদ্রিক মাছ খাওয়া হয়, তবে স্মৃতিশক্তিতে নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে

সামাজিকতার অভাব

বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, যারা একাকিত্বে ভোগে তাদের স্মৃতিশক্তি দুর্বল হয়। একইভাবে অসামাজিক ব্যক্তিরাও স্মৃতিশক্তির দুর্বলতায় ভোগে। তাই স্মৃতিশক্তি ভালো করতে চাইলে সামাজিকতার গুরুত্ব দিতে হবে।

উচ্চ রক্তচাপ

উচ্চ রক্তচাপ শুধু আপনার দেহের জন্যই ক্ষতিকর নয়, এটি মস্তিষ্কেরও ক্ষতি করে। আর এ কারণে স্মৃতিশক্তিও দুর্বল হয়ে যেতে পারে। তাই স্মৃতিশক্তি ধরে রাখতে রক্তচাপ সঠিক মাত্রায় রাখা জরুরি।

সূত্রঃ টাইমস অব ইন্ডিয়া অবলম্বনে ওমর শরীফ পল্লব

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here