দারুণ বুদ্ধিমান হয় মধ্য তিরিশের সন্তানেরা

1
320
মধ্য তিরিশে যে সব মহিলারা মা হল তাঁদের সন্তানরা হয় দারুণ বুদ্ধিমান।

বিয়ে হয়েছে ২৪ বছর বয়সে। তারপর ক্যারিয়ার গড়তে গিয়ে কোথা দিয়ে যে কেটে গিয়েছে মাঝের পাঁচ-ছ’টা বছর খেয়ালই নেই। এখন বয়স তিরিশের কোঠায়। ফ্যামিলি প্ল্যানিং শুরু করেছেন সবে। এ দিকে বয়স বেড়ে গিয়েছে তাই আপনার তাই চিন্তায় ঘুম উড়েছে মা, খালাদের। আপনার অবস্থাটা কি অনেকটা এ রকম? তাহলে জানবেন একদম ঠিক সময়ে মা হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আপনি।

লন্ডন স্কুল অফ ইকনমিক্সের একদল গবেষক জানাচ্ছেন, মধ্য তিরিশে যে সব মহিলারা মা হন তাঁদের সন্তানরা হয় দারুণ বুদ্ধিমান। এই সমীক্ষায় মোট ১৮,০০০ শিশুর ওপর গবেষণা চালান তাঁরা। দেখা গিয়েছে যাদের জন্মের সময় মায়ের বয়স ছিল মধ্য তিরিশে, তারা যে সব শিশুরা তাদের মায়েদের ২০ বা ৪০ বছর বয়সের সন্তান তাদের তুলনায় এনেক বেশি বুদ্ধিমান। গবেষকরা এদের বলেছেন সুপার ইন্টালিজেন্ট চিলড্রেন।

সন্তান মানুষ করার ক্ষেত্রেও এঁরা অনেক এগিয়ে
সন্তান মানুষ করার ক্ষেত্রেও এঁরা অনেক এগিয়ে

তাঁরা জানান মধ্য তিরিশে মহিলারা পরিণত, আর্থিক ভাবে অনেক সচ্ছ্বল, স্বাস্থ্যকর জীবন যাপন ও থিতু সম্পর্কে থাকার কারণে প্রেগন্যান্সি প্ল্যানিং অনেক সুষ্ঠভাবে করতে পারেন। ফলে সন্তান মানুষ করার ক্ষেত্রেও এঁরা অনেক এগিয়ে। বলিউড অভিনেত্রীরাই এর উদাহরণ। ঐশ্বর্যা রাই বচ্চন, লারা দত্ত, মাধুরী দীক্ষিত, করিশমা কপূর, শিল্পা শেঠি সকলেই মা হয়েছে তিরিশের পর।

তথ্যসূত্রঃ বায়োডেমোগ্রাফিক অ্যান্ড সোশ্যাল বায়োলজি জার্নাল

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here