বর্ষা মৌসুমে নিতে হবে চুলের যত্ন

বর্ষায় লাগবে চুলের বাড়তি যত্ন

বর্ষা কালে প্রকৃতি হয়ে সবুজ, সঙ্গী হয় কদম, বেলি ও দোলনচাঁপা। এই বর্ষা মৌসুমে নিতে হবে চুলের বিশেষ যত্ন। বর্ষার পানি চুলে পড়লে হতে হবে সতর্ক। তবে শুধু বৃষ্টিতে ভিজলেই নয়, বর্ষার দিনগুলো চুলের বিভিন্ন সমস্যাও দেখা দেয়। খুব ছোট ছোট কিছু চুলের যত্নের কাজ করলেই চুল থাকবে সতেজ। যে বিষয়গুলো চুলের যত্ন নিতে লক্ষ্য রাখবেন:

চুলের যত্ন নিতে হবে নিয়মিত
  • রঙিন চুলে কেমিক্যাল থাকে। তেলের সঙ্গে ভিটামিন ই ক্যাপসুল মিলিয়ে চুলের গোড়ায় মালিশ করুন। ৩০ মিনিট পর শ্যাম্পু করুন এবং ডিপ কন্ডিশন করতে হবে। আবার সপ্তাহে একবার নিউটিলাইজার ক্রিমও ব্যবহার করা যেতে পারে। বর্ষাকালে রঙিন চুলে হিট দেওয়া যাবে না।
  • চুলে প্রোটিন প্যাক ব্যবহার করতে পারেন। হেনার সঙ্গে ডিম দিয়ে বা দু-তিনটি ডিমের কুসুম ফেটে, একটু মধু দিয়ে মিশিয়ে গোসলের আগে সারা চুলে দিয়ে চিরুনি দিয়ে আঁচড়ান। ৩০ মিনিট পর শ্যাম্পু করলে চুল সোজা থাকে ও ঝরঝরে হবে।
  • মেথি ভিজিয়ে পানিটা ছেঁকে পাকা কলা, বাদাম তেল মিশিয়ে চুলে দিয়ে আঁচড়ান। ৩০ মিনিট পর শ্যাম্পু করুন। আমলা পানি চায়ের লিকারের সঙ্গে মিশিয়ে দিলে চুলের গোড়াও শক্ত হবে।
  • মাইল্ড বা প্রোটিন শ্যাম্পু সব সময় ব্যবহার করতে হবে।
  • উজ্জ্বলতা বাড়াতে চায়ের লিকার দিয়ে চুল ধুতে পারেন। ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলতে হবে। ঘনত্ব বাড়াতে টক দই ও মধু মিশিয়ে ৩০ মিনিট রেখে চিরুনি দিয়ে ৫ মিনিট উল্টো দিকে আঁচড়িয়ে শ্যাম্পু করুন। চুল শুকাতে হেয়ার ড্রায়ারের ঠান্ডা বাতাস ব্যবহার করুন। বর্ষাকালে প্রতিদিন বা এক দিন পরপর শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here