হলিউডের জনপ্রিয় ৫ তারকার অদ্ভুত যত শখ

0
701
কিছুটা ব্যতিক্রমী শখের কথা শোনা যায় হলিউড সুন্দরী অ্যাঞ্জেলিনা জোলির কাছে
তারকারদের নিয়ে এমনিতেই সাধারণ জনগণের আগ্রহের কোন কমতি নেই। তার উপর সেই তারকা যদি হন টম ক্রুজ কিংবা অ্যাঞ্জেলিনা জোলির মত বিখ্যাত কেউ তাহলে তো কথাই নেই! চলুন তবে দেখে আসা যাক কিভাবে কাটে তাদের অবসর সময়।
টম ক্রুজ
টম ক্রুজ

টম ক্রুজঃ

একজন ট্যাবলয়েড পত্রিকার সাংবাদিক সারাজীবন নিশ্চয় এই স্বপ্নটিই দেখে যাবেন যে এমন যদি হত যার কারণে স্বয়ং টম ক্রুজ তার বাড়িতে তাকে আমন্ত্রণ জানাচ্ছেন তাহলে এক জীবনে চাওয়ার আর কিছুই থাকত না! সে স্বপ্ন সত্যি না হলেও তার খবরের দুর্দান্ত উপকরণ হিসেবে টম ক্রুজ একদিন তার লস অ্যাঞ্জেলসের বাড়িতে দাওয়াত দিয়ে বসলেন উইল স্মিথ এবং ডেভিড বেকহামকে। তারা তিনজন মিলে সেখানে ফেনসিং বা তরবারি চালানোর খেলা খেলছিলেন!

উইল বলেন, “আমাদের বন্ডিং আরও শক্ত করতে এই খেলাটির কোন জুড়ি নেই”।  কাজ থেকে অবসর নিয়ে প্রায়শই ফেনসিং এ ব্যস্ত হয়ে পড়েন খ্যাতিমান এই অভিনেতারা।

অ্যাঞ্জেলিনা জোলি
অ্যাঞ্জেলিনা জোলি

অ্যাঞ্জেলিনা জোলিঃ

কিছুটা ব্যতিক্রমী শখের কথা শোনা যায় হলিউড সুন্দরী অ্যাঞ্জেলিনা জোলির কাছে। বিভিন্ন ধরনের ছুরি সংগ্রহ করা তার একমাত্র শখ। শখটি তার চরিত্রের সাথে যে একেবারে বেমানান তা কিন্তু মনে হয় না। “সল্ট” বা “মিস্টার অ্যান্ড মিসেস স্মিথ” এর মতো অ্যাকশনধর্মী মুভি দেখলে ধারণাটা আরও পাকাপোক্ত হয়।

এর চাইতেও মজার ব্যাপার হলো জোলি এক ম্যাগাজিনে বলেছেন যে, ছেলে ম্যাডক্সের মাঝেও তার এই শখ ছড়িয়ে দিতে চান তিনি। আর এজন্য তিনি এখন থেকেই ছুরি হাতে তুলে দিচ্ছেন ছেলের, যদিও ধারালো অংশটা ভোঁতা করে দিয়ে।

টম হ্যাঙ্কস
টম হ্যাঙ্কস

টম হ্যাঙ্কসঃ

আমরা যারা সিনেমা দেখতে ভালবাসি, তাদের কাছে এই নামটি খুবই পরিচিত। তার দক্ষ অভিনয় এবং অসাধারণ ব্যক্তিত্ব আমাদের অনেককেই তার ভক্ত হতে বাধ্য করেছে। অভিনেতার পাশাপাশি টম হ্যাঙ্কস একজন সুন্দর মনের মানুষও। এই অসাধারণ ব্যক্তি কাজের পাশাপাশি অবসর সময়ে আছে একটু ভিন্ন কিছু করার শখ। কিছুটা অবাক হতে হয় বৈকি। কারণ এহেন শখ আমি আর কারও আছে বলে শুনিনি। জানতে চান সেটা কি? পুরনো টাইপ রাইটার সংগ্রহ করা।

১৯৭৮ সাল থেকে তিনি বিভিন্ন ধরনের টাইপ রাইটার সংগ্রহ করে আসছেন। টাইপ রাইটারের ‘শুক’ ‘শুক’ আওয়াজ তাকে অন্য এক চিন্তা জগতে দাঁড় করায়। যেখানে টাইপ রাইটারের আওয়াজ ছাড়া আর কিছু শোনা যায় না। সময় পেলেই টাইপ রাইটারে টাইপ করতে বসে যান তিনি। নিউইয়র্ক টাইমসে তিনি লিখেছেন, “প্রতিটি শব্দের সাথে সাথে ছাপার অক্ষরে এক একটি শব্দের বিন্যাস যেকোনো লেখায় একটি অন্য মাত্রা জুড়ে দেয়। সাধারণ একটি ধন্যবাদের চিঠিও যেন একটা শৈল্পিক সৃষ্টি হিসেবে ধরা দেয়।” তিনি আরও ঠাট্টা করে বলেছেন, “এর আরেকটি ভাল দিক হলো এটি কেউ হ্যাকও করতে পারবে না।”

মেরিল স্ট্রিপ
মেরিল স্ট্রিপ

মেরিল স্ট্রিপঃ

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিখ্যাত অভিনেত্রী ও গায়িকা তিনি, পুরো নাম মেরি লুইস মেরিল স্ট্রিপ। সিনেমার সেটে সবসময় এই মহিলাকে দেখা যাবে আপন মনে উলের সোয়েটার বুনে চলেছেন। যখনি শুটিংয়ে ডাক পড়ছে, তখনই উঠে গিয়ে অভিনয় করে আসছেন। আমেরিকার এক সাংবাদিক এই দক্ষ অভিনেত্রীকে প্রশ্ন করেছিলেন, “আপনি কিভাবে ক্যামেরার সামনে এতো ফোকাস্‌ড থাকেন?” উত্তরে খানিক মুচকি হেসে মেরিল বলেছিলেন, “নিটিংই হলো একমাত্র রহস্য যা সবকিছু থেকে পৃথক করে দেয়।”

কিয়ানু রিভস
কিয়ানু রিভ

কিয়ানু রিভস:

ব্যান্ডের নাম ছিল “ডগস্টার”, আর সেখানে বেজ গিটার বাজাতেন কে ধারণা করতে পারছেন? “ম্যাট্রিক্স” মুভির স্টাইলিশ বয় স্বয়ং কিয়ানু রিভস। ১৯৯০ থেকে শুরু হয়ে ব্যান্ডটি ২০০০ সাল পর্যন্ত চলে। কিয়ানু রিভসের অভিনয় খ্যাতির কারণে মিডিয়ার বেশ নজর কাড়ে সেই সময়। পেশাগত ব্যস্ততার কারণে শেষ পর্যন্ত আর চালিয়ে যেতে পারেননি রিভস। কিন্তু ব্যান্ডে না বাজালে কি হবে? এখনও সময় পেলেই হাতে তুলে নেন গিটার আর প্লাগ-ইন করেন সুরের মূর্ছনা।

তথ্যসূত্রঃ গেমস রাডার ডট কম

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here