ঘরেই স্বাস্থ্যকর পাউরুটি বানান

ঘরেই স্বাস্থ্যকর পাউরুটি বানানোর উপায়
ঘরেই বানান সুস্বাদু ও স্বাস্থ্যকর পাউরুটি। একটু কষ্ট করে পাউরুটি প্রস্তুত করার দরকারি উপকরণগুলো জোগাড় করে নিন।

নীলিমা দোলা

সকালে খাবারের তালিকায় পাউরুটি চাই-ই চাই, আমাদের চারপাশে এমন লোকের সংখ্যাই বেশি। শুধু সকালের নাস্তাই নয়, বিকালের বার্গার-পিজ্জায়ও বাড়ির ছোট-বড় অনেকেরই প্রিয় খাদ্য পাউরুটি।

কখনো ভেবেছেন, কি খাচ্ছি আমরা? বাজার থেকে কিনে আনা পাউরুটি কি আসলেই স্বাস্থসম্মত? বাজারের পাউরুটিতে  পটাসিয়াম ব্রোমেট বা পটাসিয়াম আয়োডেট এর মত বিভিন্ন রাসায়নিক উপাদান থাকে। যা থাইরয়েড এবং ক্যান্সার এর মত জটিল রোগ সৃষ্টি করতে পারে।

সুস্থ থাকতে চাইলে অবশ্যই বাজারের পাউরুটি খাওয়ার অভ্যাস ছাড়তে হবে। তবে কি পাউরুটি খাবেন না? নিশ্চয় খাবেন। ঘরেই বানান সুস্বাদু ও স্বাস্থ্যকর পাউরুটি। একটু কষ্ট করে পাউরুটি প্রস্তুত করার দরকারি উপকরণগুলো জোগাড় করে নিন। সবই পেয়ে যাবেন নিউ মার্কেটসহ আশপাশের মুদি দোকানগুলোয়।

যা যা লাগবে:

ফোটানো গরম পানি— ১/২ কাপ
ফোটানো গরম দুধ— আড়াই কাপ
ড্রাই অ্যাক্টিভ ইস্ট— দেড় টেবিল-চামচ
লবণ— ২ টেবিল-চামচ
চিনি— ১ টেবিল-চামচ
ময়দা— ৫ কাপ
কাচের লোফ প্যান— ২টি
পার্চমেন্ট পেপার
মাখন— লোফ প্যানে মাখানোর জন্য।
বেকিং সোডা- হাফ চামচেরও একটু কম

প্রস্তুত প্রণালী

বড় কাচের পাত্রে পানি গরম করে নিন।  এবার কুসুম গরম আধা কাপ পানিতে ভালো করে ইস্ট মিশিয়ে নিন। ইস্ট মিশ্রণে গরম দুধ ঢেলে দিন। ভাল করে গুলিয়ে একপাশে আলাদা করে রাখুন। আরেকটি আলাদা পাত্রে ৩ কাপ ময়দা,  চিনি ও লবণ শুকনো করে মেখে নিন। এখন ইস্ট মিশ্রণে এই ময়দাটি ঢেলে দিন এবং একটি কাঠের চামচ ব্যবহার করে ময়দা এমনভাবে মাখাতে যাতে কোনও অংশ শুকনো না থাকে। এরপর বাকি ২ কাপ ময়দা ঢেলে দিন। মিশ্রণটি লুচির ময়দামাখার মতো হবে কিন্তু হাতে করে চাপ দিতে হবে না।

মূল পাত্রটি অপেক্ষাকৃত উষ্ণ জায়গায় পরিষ্কার একটি ঢাকনা চাপা দিয়ে রেখে দিন। এক ঘণ্টা পর ঢাকনার ওপরে একটি পরিষ্কার কাপড় মেলে দিন। যখন মিশ্রণটি আগের তুলনায় প্রায় দ্বিগুণ ফুলে উঠবে তখন একটি ছোট পাত্রে ১ চা-চামচের ১/৪ অংশ মতো বেকিং সোডা ও এক টেবিল চামচ গরম পানি গুলিয়ে নিন।

বেকিং সোডার মিশ্রণটি ময়দামাখার মধ্যে দিয়ে ঢেলে দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন। দু’টি লোফ প্যানের ভিতরের অংশে ভাল করে মাখন লাগিয়ে নিন। এবার ময়দামাখাটি  দু’ভাগ করে দু’টি প্যানে রাখুন। প্যান দু’টি আবার ঢাকনা চাপা দিয়ে রাখুন। ৪৫ মিনিট পর মিশ্রণটি আরও ফুলে উঠবে। ঢাকনা খুলে নিয়ে মাইক্রোওয়েভের হাই পাওয়ারে প্যান  দু’টি ৩ মিনিট করে বেক করুন। ৩ মিনিট পরে বন্ধ করে প্যান দু’টি ১৮০ ডিগ্রি ঘুরিয়ে দিন। তারপর হাই পাওয়ারে আবার ৩ মিনিট বেক করুন।

প্রয়োজন হলে  গোটা প্রক্রিয়াটা আরও একবার রিপিট করুন, যতক্ষণ না বেকিং জুতসই হচ্ছে। ঠান্ডা হলে আস্তে আস্তে প্যান থেকে লোফ ছাড়িয়ে নিন। যাঁদের সাধারণ ওভেন, তাঁরা ৩৫০ ডিগ্রি ওভেনে ৪০ থেকে ৫০ মিনিট বেক করুন।

এভাবে ঘরে বসেই বানিয়ে নিন স্বাস্থ্যকর পাউরুটি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here